ADS170638-2

কোম্পানীগঞ্জে দুলাভাইয়ের ধর্ষণে শালিকা আট মাসের অন্তঃস্বত্তা

 

গিয়াস উদ্দিন রনিঃ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড চরলেংটা গ্রামের কিশোরীকে (১৩) জোরপূর্বক ধর্ষণ করায় আট মাসের অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়েছে ওই কিশোরী।

এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা আহমদ উল্যাহ (৬৩) গতকাল বুধবার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নিকর্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করার পর ওই কিশোরীর ভগ্নিপতি (বড় বোনের জামাই) নুর মোহাম্মদ মামুনকে (৩০) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ধর্ষক ও লম্পট ভগ্নিপতি মামুন নোয়াখালী জেলার কবিরহাট উপজেলার ধানশালিক ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড চরমন্ডলিয়া গ্রামের রিক্সাওয়ালা রাজ্জাক মিয়ার বাড়ীর নুরুল হকের ছেলে।
ভিটটিম অন্তঃস্বত্তা কিশোরীর পিতা আহম্মদ উল্যাহর দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ৫জুন তারিখের বিকেলে ভিকটিমের নিজ বাড়ীতে একা পেয়ে তাকে তার ভগ্নিপতি জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। সে চিৎকার করিতে চাইলে আসামী মামুন তার মুখে হাত চেপে রাখে এবং এঘটনা প্রকাশ করলে হত্যা করবে বলে হুমকী দেয়। ভয়ে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে ভিকটিম কিশোরী কাউকে কিছু বলেনি। ৪-৫মাস পর ভিকটিমের শারীরিক গঠন অস্বাভাবিক হয়ে উঠলে ঘটনা প্রকাশ পায়। ভিকটিম বিষয়টি পারিবারিক সদস্যদের সকলকে জানায়। সে বর্তমানে ৮মাসের গর্ভবতী। আসামী বাদীর বড় মেয়ে লাইলী বেগমের স্বামী হওয়ায় সংসারের অশান্তি বা সংসার ভেঙ্গে যাওয়ার ভয়ে বিষয়টি পাবিবারিক ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা করা হয়। অবশেষে বুধবার কোম্পানীগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ০৩ এর ৯(১) মামলা দায়ের করা হয় (মামলা নং-১৩, ১৯/০২/২০২০)। মামলা দায়ের পরপর কয়েক ঘন্টার মধ্যে পুলিশ আসামী নুর মোঃ মামুনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়। আসামী মামুন বৃহস্পতিবার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয়। ভিটটিম ৮মাসের অন্তঃস্বত্তা কিশোরীর ডাক্তারী পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক জানান, মামলাটি দায়ের ১ঘন্টার মধ্যে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আসামী আদালতে ১৬৪ ধারা স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয়ার পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে তার অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» চাটখিলে আগুনে পোড়া সংসার ও প্রতিবন্দি সন্তান নিয়ে বিপাকে বিধবা মায়া

» চাটখিল-সোনাইমুড়ীর ১০ হাজার পরিবারে যাচ্ছে জাহাঙ্গীর আলমের খাদ্য সহায়তা

» কবিরহাটে ছাত্রলীগের ত্রাণ ও লিফলেট বিতরণ

» নোয়াখালীতে মোটর বাইক সহ সকল যান চলাচল বন্ধসহ দোকান বন্ধের নুতন নির্দেশনা জারি

» সুবর্ণচরে ঘাস কাটা নিয়ে বিরোধে কৃষক খুন, আটক ১

» বেগমগঞ্জে বিয়ে করতে যাওয়া বরকে কুপিয়ে হত্যা

» চাটখিলে করোনা সন্দেহে ৪ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্যে চট্রগ্রামে পাঠানো হয়েছে

» ফেনীর সোনাগাজীতে লোকালয় থেকে মেছো বাঘ উদ্ধার

» চাটখিলে বেসরকারী হাসপাতালের কর্মচারীদের পাশে দাঁড়ালেন মালিকপক্ষ

» আসুন মৃত্যুর মিছিল ঠেকাই। শত কষ্ট হলেও বাড়িতে থাকি

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
ADS170638-2
,

কোম্পানীগঞ্জে দুলাভাইয়ের ধর্ষণে শালিকা আট মাসের অন্তঃস্বত্তা

 

গিয়াস উদ্দিন রনিঃ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড চরলেংটা গ্রামের কিশোরীকে (১৩) জোরপূর্বক ধর্ষণ করায় আট মাসের অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়েছে ওই কিশোরী।

এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা আহমদ উল্যাহ (৬৩) গতকাল বুধবার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নিকর্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করার পর ওই কিশোরীর ভগ্নিপতি (বড় বোনের জামাই) নুর মোহাম্মদ মামুনকে (৩০) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ধর্ষক ও লম্পট ভগ্নিপতি মামুন নোয়াখালী জেলার কবিরহাট উপজেলার ধানশালিক ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড চরমন্ডলিয়া গ্রামের রিক্সাওয়ালা রাজ্জাক মিয়ার বাড়ীর নুরুল হকের ছেলে।
ভিটটিম অন্তঃস্বত্তা কিশোরীর পিতা আহম্মদ উল্যাহর দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ৫জুন তারিখের বিকেলে ভিকটিমের নিজ বাড়ীতে একা পেয়ে তাকে তার ভগ্নিপতি জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। সে চিৎকার করিতে চাইলে আসামী মামুন তার মুখে হাত চেপে রাখে এবং এঘটনা প্রকাশ করলে হত্যা করবে বলে হুমকী দেয়। ভয়ে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে ভিকটিম কিশোরী কাউকে কিছু বলেনি। ৪-৫মাস পর ভিকটিমের শারীরিক গঠন অস্বাভাবিক হয়ে উঠলে ঘটনা প্রকাশ পায়। ভিকটিম বিষয়টি পারিবারিক সদস্যদের সকলকে জানায়। সে বর্তমানে ৮মাসের গর্ভবতী। আসামী বাদীর বড় মেয়ে লাইলী বেগমের স্বামী হওয়ায় সংসারের অশান্তি বা সংসার ভেঙ্গে যাওয়ার ভয়ে বিষয়টি পাবিবারিক ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা করা হয়। অবশেষে বুধবার কোম্পানীগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ০৩ এর ৯(১) মামলা দায়ের করা হয় (মামলা নং-১৩, ১৯/০২/২০২০)। মামলা দায়ের পরপর কয়েক ঘন্টার মধ্যে পুলিশ আসামী নুর মোঃ মামুনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়। আসামী মামুন বৃহস্পতিবার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয়। ভিটটিম ৮মাসের অন্তঃস্বত্তা কিশোরীর ডাক্তারী পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক জানান, মামলাটি দায়ের ১ঘন্টার মধ্যে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আসামী আদালতে ১৬৪ ধারা স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয়ার পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে তার অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd