ADS170638-2

চাটখিলে এবার মিতুর বাল্য বিয়ে ঠেকালেন ইউএনও দিদারুল আলম

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ

পরীক্ষা এখনো শেষ না হলেও চাটখিল উপজেলার সোমপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের চলমান এসএসসি পরীক্ষার্থী মিতুর বিয়ের প্রস্তুতী চলছিল বেশ জোরে শোরেই। দু’দিন পরেই তার বিয়ে প্রবাসী বর রিয়াদের সাথে। আজ সোমবার দুপুরে স্কুলের শিক্ষার্থীবন্ধু/সহপাঠিরা তার বাড়ি ছুটে যায়  লাল পতাকা নিয়ে তার বাল্য বিয়ের প্রতিবাদে। খবর পেয়ে মিতুর বাড়িতে ছুটে আসেন স্বয়ং চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিদারুল আলম।  সংগে ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ভুইয়া সহ অন্যান্যরা। বাল্য বিয়ের কুফল বুঝিয়ে এবং মিতুকে সময়ের আগে বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা নিয়ে শেষমেষ ঠেকানো হয় এই বাল্য বিয়ে।

এই নিয়ে গত কয়েকদিনে উপজেলা প্রসাশনের হস্তক্ষেপে প্রতিরোধ করা হয় ৫ টি বাল্য বিয়ে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» চাটখিলে আগুনে পোড়া সংসার ও প্রতিবন্দি সন্তান নিয়ে বিপাকে বিধবা মায়া

» চাটখিল-সোনাইমুড়ীর ১০ হাজার পরিবারে যাচ্ছে জাহাঙ্গীর আলমের খাদ্য সহায়তা

» কবিরহাটে ছাত্রলীগের ত্রাণ ও লিফলেট বিতরণ

» নোয়াখালীতে মোটর বাইক সহ সকল যান চলাচল বন্ধসহ দোকান বন্ধের নুতন নির্দেশনা জারি

» সুবর্ণচরে ঘাস কাটা নিয়ে বিরোধে কৃষক খুন, আটক ১

» বেগমগঞ্জে বিয়ে করতে যাওয়া বরকে কুপিয়ে হত্যা

» চাটখিলে করোনা সন্দেহে ৪ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্যে চট্রগ্রামে পাঠানো হয়েছে

» ফেনীর সোনাগাজীতে লোকালয় থেকে মেছো বাঘ উদ্ধার

» চাটখিলে বেসরকারী হাসপাতালের কর্মচারীদের পাশে দাঁড়ালেন মালিকপক্ষ

» আসুন মৃত্যুর মিছিল ঠেকাই। শত কষ্ট হলেও বাড়িতে থাকি

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
ADS170638-2
,

চাটখিলে এবার মিতুর বাল্য বিয়ে ঠেকালেন ইউএনও দিদারুল আলম

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ

পরীক্ষা এখনো শেষ না হলেও চাটখিল উপজেলার সোমপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের চলমান এসএসসি পরীক্ষার্থী মিতুর বিয়ের প্রস্তুতী চলছিল বেশ জোরে শোরেই। দু’দিন পরেই তার বিয়ে প্রবাসী বর রিয়াদের সাথে। আজ সোমবার দুপুরে স্কুলের শিক্ষার্থীবন্ধু/সহপাঠিরা তার বাড়ি ছুটে যায়  লাল পতাকা নিয়ে তার বাল্য বিয়ের প্রতিবাদে। খবর পেয়ে মিতুর বাড়িতে ছুটে আসেন স্বয়ং চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিদারুল আলম।  সংগে ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ভুইয়া সহ অন্যান্যরা। বাল্য বিয়ের কুফল বুঝিয়ে এবং মিতুকে সময়ের আগে বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা নিয়ে শেষমেষ ঠেকানো হয় এই বাল্য বিয়ে।

এই নিয়ে গত কয়েকদিনে উপজেলা প্রসাশনের হস্তক্ষেপে প্রতিরোধ করা হয় ৫ টি বাল্য বিয়ে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd