রামগঞ্জে ৩ কোটি টাকা নয়-ছয়ের অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

আবু তাহের, রামগঞ্জ থেকে:
লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জে ৪ বছরে ৩ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ নয়-ছয় করার অভিযোগ উঠেছে উপজেলার ৯নং ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বশির আহমেদ মানিকের বিরুদ্ধে । ১১মে (সোমবার) দুপুরে ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের ১১জন মেম্বার উন্নয়নের ওই ৩ কোটি টাকার হিসেব চেয়ে ইউপি সচিবের মাধ্যমে চেয়ারম্যানের নিকট লিখিত আবেদন করেন।
৯নং ভোলাকোট ইউপি সদস্য কামাল হোসেন চৌধুরী,সফিকুল ইসলাম,কাঊসার আলম,বেলায়েত হোসেন,জাকির হোসেন,হারুনুর রশিদ,নাছরিন আক্তার,তোফাজ্জল হোসেন,মোঃ মহসিন,আরিফ হোসেন ও মায়া বেগম লিখিত আবেদনে উল্লেখ করা হয়, বশির আহম্মেদ মানিক চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে গত ৪৪ মাস যাবত ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের কোন উন্নয়ন কমিটি বা বরাদ্ধের কোন সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। এ নিয়ে কোন সদস্য কথা বললে চেয়ারম্যান মেম্বারদের পদে পদে একাধিকবার অপমানিত ও লাঞ্চিত করার মাধ্যমে জোরপূর্বক মেম্বারদের খালি নোটিস বই ও রেজুলেশ খাতায় স্বাক্ষর নিয়ে নামে বেনামে প্রকল্প অনুমোধন করা হয়। বিগত ৪৪ মাসে নাম্বার প্লেট বাবত ১৫ লক্ষ,হোল্ডিং ট্যাক্স বাবত ৩০ লক্ষ,এডিপির ১৫ লক্ষ,টিআর/কাবিখা/কাবিটার ২৫ লক্ষ,সোলার প্যানেল ২৫ লক্ষ,ট্রেড লাইসেন্স ২৫ লক্ষ,জম্ম-মৃত্যু এবং ওয়ারিশ সনদ ২০ লক্ষ,ওয়ান পার্সন ৪০ লক্ষ,এলজিএসপি প্রকল্পের ৭০ লক্ষ,চল্লিশ দিনের কর্মসুচি ৪০ লক্ষ, গভীর নলকুপ ১০ লক্ষ টাকা এবং বিভিন্ন বয়স্ক, বিধাব, প্রতিবন্ধী, মাতৃত্বভাতাসহ কোন গ্রামে কতোজনকে ও কারা তালিকা দিয়েছে,কোথাই কি প্রকল্পের কাজ হয়েছে সংশিষ্ট এলাকার কোন মেম্বরগন তা মোটেও জানেন না বলেও আবেদনে উল্লেখ করেন। এব্যাপারে মেম্বার কামাল হোসেন চৌধুরী বলেন, ইউপি পরিষদের ১১ মেম্বার লিখিত ভাবে সচিবের মাধ্যমে চেয়ারম্যানকে দিয়েছি। পাশাপাশি অনুলিপি স্থানীয় এমপি মহোদয়,চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার,ল²ীপুর জেলা প্রশাসক,রামগঞ্জ উপজেলা চেয়াম্যান,উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)কে অবহিত করা হয়েছে।
ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বশির আহম্মেদ মানিক জানান, সামনে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে। এজন্য একটি কুচক্রী মহল ওই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আমার পরিষদের মেম্বারদের ব্যবহার করে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তবে ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে আমি ঢাকায় থাকার কারনে একটু ব্যাস্ত আছি। তবে উন্নয়ন বরাদ্ধের হিসাব মেম্বারদের যে কোন সময় দেওয়া যাবে।

 

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» চাটখিলের সন্তান বাঁধনের জিপিএ ফাইভ অর্জন

» নারীর লাশ ঝুলছে, সন্তানের পানিতে,স্বামী পলাতক

» সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের নুতন সভাপতি খোরশেদ আলম সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া

» করোনা দুর্যোগে নোয়াখালীর ৩০ হাজার মানুষের পাশে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম

» বেগমগঞ্জে ঈদের রাতে আ,লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সহ আহত ৯ গ্রেফতার ৩

» নোয়াখালী সিভিল সার্জন অফিসের ফেসবুক আইডি হ্যাক

» চাটখিলে বাবার বাড়ী থেকে ১ সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

» করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির কয়েক ঘন্টা পরে মারা গেলেন বেগমগঞ্জের একজন

» স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘উইফরইউ পাঠশালা’র ১২০ শিক্ষার্থী পেল ঈদ উপহার ও নগদ অর্থ

» নোয়াখালীতে নুতন আক্রান্ত ৭৭, চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগ বাদে সব বন্ধ

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

রামগঞ্জে ৩ কোটি টাকা নয়-ছয়ের অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

আবু তাহের, রামগঞ্জ থেকে:
লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জে ৪ বছরে ৩ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ নয়-ছয় করার অভিযোগ উঠেছে উপজেলার ৯নং ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বশির আহমেদ মানিকের বিরুদ্ধে । ১১মে (সোমবার) দুপুরে ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের ১১জন মেম্বার উন্নয়নের ওই ৩ কোটি টাকার হিসেব চেয়ে ইউপি সচিবের মাধ্যমে চেয়ারম্যানের নিকট লিখিত আবেদন করেন।
৯নং ভোলাকোট ইউপি সদস্য কামাল হোসেন চৌধুরী,সফিকুল ইসলাম,কাঊসার আলম,বেলায়েত হোসেন,জাকির হোসেন,হারুনুর রশিদ,নাছরিন আক্তার,তোফাজ্জল হোসেন,মোঃ মহসিন,আরিফ হোসেন ও মায়া বেগম লিখিত আবেদনে উল্লেখ করা হয়, বশির আহম্মেদ মানিক চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে গত ৪৪ মাস যাবত ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের কোন উন্নয়ন কমিটি বা বরাদ্ধের কোন সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। এ নিয়ে কোন সদস্য কথা বললে চেয়ারম্যান মেম্বারদের পদে পদে একাধিকবার অপমানিত ও লাঞ্চিত করার মাধ্যমে জোরপূর্বক মেম্বারদের খালি নোটিস বই ও রেজুলেশ খাতায় স্বাক্ষর নিয়ে নামে বেনামে প্রকল্প অনুমোধন করা হয়। বিগত ৪৪ মাসে নাম্বার প্লেট বাবত ১৫ লক্ষ,হোল্ডিং ট্যাক্স বাবত ৩০ লক্ষ,এডিপির ১৫ লক্ষ,টিআর/কাবিখা/কাবিটার ২৫ লক্ষ,সোলার প্যানেল ২৫ লক্ষ,ট্রেড লাইসেন্স ২৫ লক্ষ,জম্ম-মৃত্যু এবং ওয়ারিশ সনদ ২০ লক্ষ,ওয়ান পার্সন ৪০ লক্ষ,এলজিএসপি প্রকল্পের ৭০ লক্ষ,চল্লিশ দিনের কর্মসুচি ৪০ লক্ষ, গভীর নলকুপ ১০ লক্ষ টাকা এবং বিভিন্ন বয়স্ক, বিধাব, প্রতিবন্ধী, মাতৃত্বভাতাসহ কোন গ্রামে কতোজনকে ও কারা তালিকা দিয়েছে,কোথাই কি প্রকল্পের কাজ হয়েছে সংশিষ্ট এলাকার কোন মেম্বরগন তা মোটেও জানেন না বলেও আবেদনে উল্লেখ করেন। এব্যাপারে মেম্বার কামাল হোসেন চৌধুরী বলেন, ইউপি পরিষদের ১১ মেম্বার লিখিত ভাবে সচিবের মাধ্যমে চেয়ারম্যানকে দিয়েছি। পাশাপাশি অনুলিপি স্থানীয় এমপি মহোদয়,চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার,ল²ীপুর জেলা প্রশাসক,রামগঞ্জ উপজেলা চেয়াম্যান,উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)কে অবহিত করা হয়েছে।
ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বশির আহম্মেদ মানিক জানান, সামনে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে। এজন্য একটি কুচক্রী মহল ওই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আমার পরিষদের মেম্বারদের ব্যবহার করে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তবে ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে আমি ঢাকায় থাকার কারনে একটু ব্যাস্ত আছি। তবে উন্নয়ন বরাদ্ধের হিসাব মেম্বারদের যে কোন সময় দেওয়া যাবে।

 

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd