চাটখিল উপজেলা বিএনপির সাবেক সেক্রেটারি মাওলানা তাফাজ্জলের ১৬তম মৃত্যু বার্ষিকী বৃহস্পতিবার

 

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্কঃ

২১ মে ২০২০ চাটখিল উপজেলা বিএনপির সাবেক সেক্রেটারি, নোয়াখালী জেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, খোয়াজের ভিটি ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক ভাইস প্রিন্সিপাল, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগী প্রয়াত অধ্যাপক মাওলানা তাফাজ্জল হোসেনের ১৬তম মৃত্যু বার্ষিকী।

তিনি ১৯৭৮ সালে শহিদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের উন্নয়ন ও ও উৎপাদনের রাজনীতিতে অনুপ্রনিত হয়ে “জাগদলে” যোগদান করেন। কিছু সংখ্যক সৎ ও সাহসী কর্মী নিয়ে নতুন দলের গোড়াপত্তন শুরু করেন। তৎকালীন রামগঞ্জ চাটখিল সংসদীয় আসনে একবারে নতুন মুখ হাজী কালাম কে ধানের শীষের প্রথম এমপি নির্বাচিত করেন। নোয়াখালীতে তখন ছিলো জাসদ( রব) এর ভরা যৌবন। এই প্রতিকূলতার মধ্যে তিনি সহকর্মীদের সাথে নিয়ে নিষ্ঠার সাথে কাজ করেন। অল্প সময়ে চাটখিলের প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে বিএনপিকে জনগনের প্রানের সংগঠন হিসেবে সবার মাঝে প্রতিষ্ঠিত করেন। সেই সময়ের নেতা কর্মীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে চাটখিল উপজেলা বিএনপি প্রতিষ্ঠিত ও সুদৃঢ় হয়।

সময় এবং অবস্থার জটিল প্রেক্ষাপটে নীতি-আদর্শকে সমুন্নত রেখে রাজনীতি করা বড়ই কঠিনতর কাজ। সমাজের চলমাম রাজনীতির অনৈতিকতার কাছে হার মেনে রাজনীতিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে এমন নেতৃত্বের ভারে আমাদের গোটা জাতি ও সমাজ আজ জ্বরাগ্রস্থ। কেউ কেউ রাজনীতিকে পেশা হিসেবে গ্রহন করে অর্থ-বৈভব প্রভাব প্রতিপত্তির নেশায় মেতে উঠেন। এমন রাজনৈতিক নেতৃত্বের বিচারে সম্পূর্ণ এক ব্যতিক্রমী ও আদর্শবান ব্যক্তিত্ব ছিলেন মাওলানা তাফাজ্জল হোসেন।

একজন অধ্যাপক ও দক্ষ প্রশাসক হিসেবে তার যথেষ্ট সুনাম ছিলো। হাজার আলেম তৈরীর নিখুঁত কারিগর ছিলেন তিনি। তার প্রতিষ্ঠানের ভালো ফলাফলের পিছনে তিনি ছিলেন অগ্রপথিক। উপজেলা শিক্ষা কমিটির একজন সসস্য থাকার সুবাদে পুরো চাটখিল উপজেলার শিক্ষার মান উন্নয়নে তিনি আপ্রান চেষ্টা করেন।উপজেলার একপ্রান্ত হতে অন্য প্রান্তে ছুটে গিয়েছেন শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে। মাওলানা তাফাজ্জল হোসেন ৪ বার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হিসেবে সন্মাননা পদক অর্জন করেন।

তার মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে পরকোট ইউনিয়নের দক্ষিণ রামদেবপুর গ্রামের তার নিজ বাড়িতে ও বিভিন্ন মসজিদে বিশেষ দোয়া ও কোরআন খতমের আয়োজন করা হয়েছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে সবার কাছে মরহুমের জন্য দোয়ার আবেদন জানিয়েছেন তার বড় ছেলে এএসএম আবদুল আউয়াল (ছালেহ মোল্লা)।

উল্লেখ্য ২০০৪ সালের এই দিনে তৎকালীন জেলা সভাপতি মো. শাহাজাহান এমপি ও চাটখিল উপজেলা বিএপির সভাপতি এডভোকেট মাহবুবুর রহমান এমপির সাথে দলীয় কাজে সাক্ষাত শেষে ঢাকা থেকে আল-বারাকা পরিবহনে চাটখিল আসার পথে সোনাইমুড়ীর নদনায় এক মারাত্মক সড়ক দূর্ঘটনার তিনি মৃত্যুবরন করেন।

(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» চাটখিলের সন্তান বাঁধনের জিপিএ ফাইভ অর্জন

» নারীর লাশ ঝুলছে, সন্তানের পানিতে,স্বামী পলাতক

» সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের নুতন সভাপতি খোরশেদ আলম সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া

» করোনা দুর্যোগে নোয়াখালীর ৩০ হাজার মানুষের পাশে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম

» বেগমগঞ্জে ঈদের রাতে আ,লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সহ আহত ৯ গ্রেফতার ৩

» নোয়াখালী সিভিল সার্জন অফিসের ফেসবুক আইডি হ্যাক

» চাটখিলে বাবার বাড়ী থেকে ১ সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

» করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির কয়েক ঘন্টা পরে মারা গেলেন বেগমগঞ্জের একজন

» স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘উইফরইউ পাঠশালা’র ১২০ শিক্ষার্থী পেল ঈদ উপহার ও নগদ অর্থ

» নোয়াখালীতে নুতন আক্রান্ত ৭৭, চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগ বাদে সব বন্ধ

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

চাটখিল উপজেলা বিএনপির সাবেক সেক্রেটারি মাওলানা তাফাজ্জলের ১৬তম মৃত্যু বার্ষিকী বৃহস্পতিবার

 

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্কঃ

২১ মে ২০২০ চাটখিল উপজেলা বিএনপির সাবেক সেক্রেটারি, নোয়াখালী জেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, খোয়াজের ভিটি ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক ভাইস প্রিন্সিপাল, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগী প্রয়াত অধ্যাপক মাওলানা তাফাজ্জল হোসেনের ১৬তম মৃত্যু বার্ষিকী।

তিনি ১৯৭৮ সালে শহিদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের উন্নয়ন ও ও উৎপাদনের রাজনীতিতে অনুপ্রনিত হয়ে “জাগদলে” যোগদান করেন। কিছু সংখ্যক সৎ ও সাহসী কর্মী নিয়ে নতুন দলের গোড়াপত্তন শুরু করেন। তৎকালীন রামগঞ্জ চাটখিল সংসদীয় আসনে একবারে নতুন মুখ হাজী কালাম কে ধানের শীষের প্রথম এমপি নির্বাচিত করেন। নোয়াখালীতে তখন ছিলো জাসদ( রব) এর ভরা যৌবন। এই প্রতিকূলতার মধ্যে তিনি সহকর্মীদের সাথে নিয়ে নিষ্ঠার সাথে কাজ করেন। অল্প সময়ে চাটখিলের প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে বিএনপিকে জনগনের প্রানের সংগঠন হিসেবে সবার মাঝে প্রতিষ্ঠিত করেন। সেই সময়ের নেতা কর্মীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে চাটখিল উপজেলা বিএনপি প্রতিষ্ঠিত ও সুদৃঢ় হয়।

সময় এবং অবস্থার জটিল প্রেক্ষাপটে নীতি-আদর্শকে সমুন্নত রেখে রাজনীতি করা বড়ই কঠিনতর কাজ। সমাজের চলমাম রাজনীতির অনৈতিকতার কাছে হার মেনে রাজনীতিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে এমন নেতৃত্বের ভারে আমাদের গোটা জাতি ও সমাজ আজ জ্বরাগ্রস্থ। কেউ কেউ রাজনীতিকে পেশা হিসেবে গ্রহন করে অর্থ-বৈভব প্রভাব প্রতিপত্তির নেশায় মেতে উঠেন। এমন রাজনৈতিক নেতৃত্বের বিচারে সম্পূর্ণ এক ব্যতিক্রমী ও আদর্শবান ব্যক্তিত্ব ছিলেন মাওলানা তাফাজ্জল হোসেন।

একজন অধ্যাপক ও দক্ষ প্রশাসক হিসেবে তার যথেষ্ট সুনাম ছিলো। হাজার আলেম তৈরীর নিখুঁত কারিগর ছিলেন তিনি। তার প্রতিষ্ঠানের ভালো ফলাফলের পিছনে তিনি ছিলেন অগ্রপথিক। উপজেলা শিক্ষা কমিটির একজন সসস্য থাকার সুবাদে পুরো চাটখিল উপজেলার শিক্ষার মান উন্নয়নে তিনি আপ্রান চেষ্টা করেন।উপজেলার একপ্রান্ত হতে অন্য প্রান্তে ছুটে গিয়েছেন শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে। মাওলানা তাফাজ্জল হোসেন ৪ বার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হিসেবে সন্মাননা পদক অর্জন করেন।

তার মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে পরকোট ইউনিয়নের দক্ষিণ রামদেবপুর গ্রামের তার নিজ বাড়িতে ও বিভিন্ন মসজিদে বিশেষ দোয়া ও কোরআন খতমের আয়োজন করা হয়েছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে সবার কাছে মরহুমের জন্য দোয়ার আবেদন জানিয়েছেন তার বড় ছেলে এএসএম আবদুল আউয়াল (ছালেহ মোল্লা)।

উল্লেখ্য ২০০৪ সালের এই দিনে তৎকালীন জেলা সভাপতি মো. শাহাজাহান এমপি ও চাটখিল উপজেলা বিএপির সভাপতি এডভোকেট মাহবুবুর রহমান এমপির সাথে দলীয় কাজে সাক্ষাত শেষে ঢাকা থেকে আল-বারাকা পরিবহনে চাটখিল আসার পথে সোনাইমুড়ীর নদনায় এক মারাত্মক সড়ক দূর্ঘটনার তিনি মৃত্যুবরন করেন।

(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd