রামগঞ্জে শিক্ষক পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানী করে সম্পত্তি দখলের চেষ্টা

আবু তাহের, রামগঞ্জ :
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার গাজীপুর গ্রামে সম্পত্তি দখলে নিতে সৎ ভাইয়ের স্ত্রী শিক্ষক আক্তারুজ্জামানের পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানীর পাশাপাশি নারী নির্যাতন মামলা ও চাকুরীচ্যুত করার হুমকি ধমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সৃষ্ট ঘটনা এলাকাবাসীর মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সুত্রে জানায়,উপজেলার করপাড়া ইউপির গাজীপুর ওয়ার্ড আ‘লীগের সাধারন সম্পাদক ও চাটখিলের মমিনপুর দাখিল মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক আক্তারুজ্জান ২০০৮ সালে ৭১২০ দলিল মুলে গাজীপুর মৌজায় সোয়া ৮ শতাংশ এবং ডুমুরিয়া মৌজায় ৪৭ শতাংশ পিতা গোলাম মোস্তফা মেম্বার থেকে এবং ২০১০ সালে ৭৮৩৭ দলিল মুলে ডুমুরিয়া মৌজায় ৭২ শতাংশ সম্পত্তির ফুফু তৈয়ুবা খাতুন থেকে ক্রয় সুত্রে মালিক হয়ে ভোগ দখল করে। ২০১৪ সালে আক্তারুজ্জামানের সৎ ভাইয়ের স্ত্রী করপাড়া ইউপি জামায়াতের মহিলা তালিমের আমির হাজেরা বেগম প্রতারনার মাধ্যমে ৪টি দলিল তৈরী করে শিক্ষক আক্তারুজ্জামান পরিবারের ৭জনের বিরুদ্ধে ল²ীপুর জর্জ আদালতে ৬৮৮/১৪ এবং ১৮৯/১৪ দুটি মামলা করে। ২০১৬ সালে পুনরায় একই পরিবারের বিরুদ্ধে ল²ীপুর জর্জ আদালতে ৫৬/১৬ এবং ৫৭/১৬ মামলা দায়ের করে। স্থানীয় ইউপি মেম্বার নাসির উদ্দিনসহ গ্রামের সুধীজনেরা জানান,শিক্ষক আক্তারুজ্জামানের পিতা জীবনদশা ২০০৮ সালে সম্পত্তি দলিল করে দেওয়ার পুর্ব থেকেই গাজীপুর বাজার সম্পত্তিতে ৩টি টিন সেট দোকানঘর ভাড়া দিয়ে রেখেছে। ২০১৪ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে হাজেরা বেগম আদালতে মামলা দায়ের করে দফায় দফায় ওই দোকানঘর দখলের চেষ্টা চালায়। শিক্ষক আক্তারুজ্জামানের বোন হাজেরা বেগম বলেন, আমার সৎ ভাইয়ের স্ত্রী হাজেরা বেগম পরিবারের সবার বিরুদ্ধে ৪টি মামলা দিয়ে ক্ষান্ত হয়নি,ভাইকে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা ফাসাঁনো এবং মাদ্রাসা থেকে চাকুরীচ্যুত করার হুমকি ও সন্ত্রাসী গ্রæপ নিয়ে আমাদের নানা ভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। শিক্ষক আক্তারুজ্জামান বলেন,আমার পিতা গাজীপুর ওয়ার্ড মেম্বার ও করপাড়া ইউপিতে একাধিকবার ভারপ্রাপ্ত চেয়ায়রম্যান গোলাম মোস্তফা জীবদশায় বোনের নিকট থেকে সম্পত্তি ক্রয় করে নেয়। ওই সম্পত্তি পুনরায় সৎ ভাইয়ের স্ত্রী ২০১৪ সালে দলিল করে নিয়ে আমাকে,আমার বোনকে এমনকি আমার আরেক সৎ মাকে মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। করপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুল হক মজিব বলেন,গোলাম মোস্তফার তিন সন্তানের মধ্যে বড় সংসারের ছেলে নুরুল আমিনের স্ত্রী হাজেরা বেগম খুশি ছোট দুই সংসারের সন্তান ও স্ত্রীকে মামলা দিয়ে হয়রানী করার পাশাপাশি সম্পুন্ন সম্পত্তি দখলের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। এছাড়াও বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে কয়েকবার বৈঠকে মিলিত হলেও সমাধান করা সম্ভাব হচ্ছে না। মোহাম্মদিয়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর এমদাদুল হক এমদাদ বলেন, উভয়ের শান্তি শৃংখলা রক্ষার্থে বিষয়টি দলিলের মুল কাগজপত্র দেখে সমাধানের চেষ্টা করছি।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» হাতিয়ায় বোনকে গলা টিপে হত্যা করল ভাই

» সোনাইমুড়ীর জয়াগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তরুন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের মৃত্যু

» বেগমগঞ্জে গোসল নিয়ে দ্বন্ধে যুবককে হত্যা, আটক ৫

» সোনাইমুড়ীতে পারিবারিক বিরোধে অবরুদ্ধ এক পরিবারের মানবেতর জীবন-যাপন

» করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় বেগমগঞ্জের যুবকের মৃত্যু

» ইসলামিক ফোরাম অব আফ্রিকা ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

» সুবর্ণচরে বয়স্ক ভাতার ঘুষ নিয়ে দ্বন্ধের জের ধরে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৩

» সোনাইমুড়ীতে ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর পরিবারকে এলাকা ছাড়ার হুমকি

» নোয়াখালীতে সুদের টাকার জন্য ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ, লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

» চাটখিলের খিলপাড়াতে ইসলামী ব্যাংকের ২য় শাখার কার্যক্রম শুরু

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

রামগঞ্জে শিক্ষক পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানী করে সম্পত্তি দখলের চেষ্টা

আবু তাহের, রামগঞ্জ :
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার গাজীপুর গ্রামে সম্পত্তি দখলে নিতে সৎ ভাইয়ের স্ত্রী শিক্ষক আক্তারুজ্জামানের পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানীর পাশাপাশি নারী নির্যাতন মামলা ও চাকুরীচ্যুত করার হুমকি ধমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সৃষ্ট ঘটনা এলাকাবাসীর মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সুত্রে জানায়,উপজেলার করপাড়া ইউপির গাজীপুর ওয়ার্ড আ‘লীগের সাধারন সম্পাদক ও চাটখিলের মমিনপুর দাখিল মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক আক্তারুজ্জান ২০০৮ সালে ৭১২০ দলিল মুলে গাজীপুর মৌজায় সোয়া ৮ শতাংশ এবং ডুমুরিয়া মৌজায় ৪৭ শতাংশ পিতা গোলাম মোস্তফা মেম্বার থেকে এবং ২০১০ সালে ৭৮৩৭ দলিল মুলে ডুমুরিয়া মৌজায় ৭২ শতাংশ সম্পত্তির ফুফু তৈয়ুবা খাতুন থেকে ক্রয় সুত্রে মালিক হয়ে ভোগ দখল করে। ২০১৪ সালে আক্তারুজ্জামানের সৎ ভাইয়ের স্ত্রী করপাড়া ইউপি জামায়াতের মহিলা তালিমের আমির হাজেরা বেগম প্রতারনার মাধ্যমে ৪টি দলিল তৈরী করে শিক্ষক আক্তারুজ্জামান পরিবারের ৭জনের বিরুদ্ধে ল²ীপুর জর্জ আদালতে ৬৮৮/১৪ এবং ১৮৯/১৪ দুটি মামলা করে। ২০১৬ সালে পুনরায় একই পরিবারের বিরুদ্ধে ল²ীপুর জর্জ আদালতে ৫৬/১৬ এবং ৫৭/১৬ মামলা দায়ের করে। স্থানীয় ইউপি মেম্বার নাসির উদ্দিনসহ গ্রামের সুধীজনেরা জানান,শিক্ষক আক্তারুজ্জামানের পিতা জীবনদশা ২০০৮ সালে সম্পত্তি দলিল করে দেওয়ার পুর্ব থেকেই গাজীপুর বাজার সম্পত্তিতে ৩টি টিন সেট দোকানঘর ভাড়া দিয়ে রেখেছে। ২০১৪ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে হাজেরা বেগম আদালতে মামলা দায়ের করে দফায় দফায় ওই দোকানঘর দখলের চেষ্টা চালায়। শিক্ষক আক্তারুজ্জামানের বোন হাজেরা বেগম বলেন, আমার সৎ ভাইয়ের স্ত্রী হাজেরা বেগম পরিবারের সবার বিরুদ্ধে ৪টি মামলা দিয়ে ক্ষান্ত হয়নি,ভাইকে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা ফাসাঁনো এবং মাদ্রাসা থেকে চাকুরীচ্যুত করার হুমকি ও সন্ত্রাসী গ্রæপ নিয়ে আমাদের নানা ভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। শিক্ষক আক্তারুজ্জামান বলেন,আমার পিতা গাজীপুর ওয়ার্ড মেম্বার ও করপাড়া ইউপিতে একাধিকবার ভারপ্রাপ্ত চেয়ায়রম্যান গোলাম মোস্তফা জীবদশায় বোনের নিকট থেকে সম্পত্তি ক্রয় করে নেয়। ওই সম্পত্তি পুনরায় সৎ ভাইয়ের স্ত্রী ২০১৪ সালে দলিল করে নিয়ে আমাকে,আমার বোনকে এমনকি আমার আরেক সৎ মাকে মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। করপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুল হক মজিব বলেন,গোলাম মোস্তফার তিন সন্তানের মধ্যে বড় সংসারের ছেলে নুরুল আমিনের স্ত্রী হাজেরা বেগম খুশি ছোট দুই সংসারের সন্তান ও স্ত্রীকে মামলা দিয়ে হয়রানী করার পাশাপাশি সম্পুন্ন সম্পত্তি দখলের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। এছাড়াও বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে কয়েকবার বৈঠকে মিলিত হলেও সমাধান করা সম্ভাব হচ্ছে না। মোহাম্মদিয়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর এমদাদুল হক এমদাদ বলেন, উভয়ের শান্তি শৃংখলা রক্ষার্থে বিষয়টি দলিলের মুল কাগজপত্র দেখে সমাধানের চেষ্টা করছি।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd