ভাতার কার্ডে টাকা নেয়ার সময় কাউন্সিলর র‍্যবের হাতে আটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ

ফেনী পৌরসভার পূর্ব মধুপুর এলাকায় মাতৃদুগ্ধ ভাতার কার্ড দেওয়ার নামে দরিদ্র লোকজন থেকে টাকা আদায়কালে ১৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও ওযার্ড আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ বাদলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব জানায়, শুক্রবার দুপুরে মাতৃদুগ্ধ ভাতার কার্ড দেয়ার নাম করে দরিদ্র লোকজনের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার সময় অভিযান চালিয়ে ফেনী পৌরসভার ১৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবু ইউসুফ বাদল (৫৭) কে হাতেনাতে আটক করা হয়। তিনি প্রতিটি মাতৃদুগ্ধ কার্ডের জন্য ৪ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করতেন। এছাড়া বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, এমনকি ১০ টাকা দামের সরকারী খাদ্যবান্ধব চালের কার্ড বিলি বন্টনের সময়ও টাকা ছাড়া দিতেন না বলে তার বিরুদ্ধে স্থানীয় লোকজন নানা ধরনের অভিযোগ করেছে।

ফেনীস্থ র‌্যাব -৭ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মো. নুরুজ্জামান জানান, ‘ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা কর্মসূচি’ ভাতা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন নামে সীল ও স্বাক্ষরসহ অগ্রনী ব্যাংক লিমিটেডের হিসাব নম্বর খোলার ফরম- ৩৭ টি, ভাতার কার্ড দেওয়ার নামে দরিদ্র লোকজনের কাছ থেকে নেওয়া ৪৯ হাজার ২০০ টাকা, তার নামের সীল , কর্মজীবি ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল হতে উপকারভোগীদের নামীয় তালিকা- ০৭ পাতা উদ্ধারসহ বাদলকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে প্রতিনিয়ত ‘ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা কর্মসূচি’ ভাতার কার্ড করার জন্য দরিদ্র লোকজনের নিকট হইতে অবৈধভাবে ৪ হাজার টাকা থেকে ১০হাজার টাকা টাকা করে নিয়ে আসছে।

তিনি জানান, তাকে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ফেনী মডেল থানা পুলিশে সোপর্দ করা হবে।

তবে র‌্যাবের হাতে আটক থাকায় ওই পৌর কাউন্সিলার আবু ইউসুফ বাদলের বক্তব্য জানা যায়নি।

ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিন জানান, তিনি বিষয়টি শুনেছেন। ওই পৌর কাউন্সিলার যদি সত্যিই কোন অপরাধ বা অবৈধভাবে কারো নিকট থেকে টাকা নিয়ে থাকেন-তা হলে তাকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» হাতিয়ায় বোনকে গলা টিপে হত্যা করল ভাই

» সোনাইমুড়ীর জয়াগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তরুন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের মৃত্যু

» বেগমগঞ্জে গোসল নিয়ে দ্বন্ধে যুবককে হত্যা, আটক ৫

» সোনাইমুড়ীতে পারিবারিক বিরোধে অবরুদ্ধ এক পরিবারের মানবেতর জীবন-যাপন

» করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় বেগমগঞ্জের যুবকের মৃত্যু

» ইসলামিক ফোরাম অব আফ্রিকা ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

» সুবর্ণচরে বয়স্ক ভাতার ঘুষ নিয়ে দ্বন্ধের জের ধরে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৩

» সোনাইমুড়ীতে ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর পরিবারকে এলাকা ছাড়ার হুমকি

» নোয়াখালীতে সুদের টাকার জন্য ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ, লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

» চাটখিলের খিলপাড়াতে ইসলামী ব্যাংকের ২য় শাখার কার্যক্রম শুরু

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

ভাতার কার্ডে টাকা নেয়ার সময় কাউন্সিলর র‍্যবের হাতে আটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ

ফেনী পৌরসভার পূর্ব মধুপুর এলাকায় মাতৃদুগ্ধ ভাতার কার্ড দেওয়ার নামে দরিদ্র লোকজন থেকে টাকা আদায়কালে ১৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও ওযার্ড আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ বাদলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব জানায়, শুক্রবার দুপুরে মাতৃদুগ্ধ ভাতার কার্ড দেয়ার নাম করে দরিদ্র লোকজনের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার সময় অভিযান চালিয়ে ফেনী পৌরসভার ১৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবু ইউসুফ বাদল (৫৭) কে হাতেনাতে আটক করা হয়। তিনি প্রতিটি মাতৃদুগ্ধ কার্ডের জন্য ৪ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করতেন। এছাড়া বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, এমনকি ১০ টাকা দামের সরকারী খাদ্যবান্ধব চালের কার্ড বিলি বন্টনের সময়ও টাকা ছাড়া দিতেন না বলে তার বিরুদ্ধে স্থানীয় লোকজন নানা ধরনের অভিযোগ করেছে।

ফেনীস্থ র‌্যাব -৭ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মো. নুরুজ্জামান জানান, ‘ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা কর্মসূচি’ ভাতা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন নামে সীল ও স্বাক্ষরসহ অগ্রনী ব্যাংক লিমিটেডের হিসাব নম্বর খোলার ফরম- ৩৭ টি, ভাতার কার্ড দেওয়ার নামে দরিদ্র লোকজনের কাছ থেকে নেওয়া ৪৯ হাজার ২০০ টাকা, তার নামের সীল , কর্মজীবি ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল হতে উপকারভোগীদের নামীয় তালিকা- ০৭ পাতা উদ্ধারসহ বাদলকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে প্রতিনিয়ত ‘ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা কর্মসূচি’ ভাতার কার্ড করার জন্য দরিদ্র লোকজনের নিকট হইতে অবৈধভাবে ৪ হাজার টাকা থেকে ১০হাজার টাকা টাকা করে নিয়ে আসছে।

তিনি জানান, তাকে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ফেনী মডেল থানা পুলিশে সোপর্দ করা হবে।

তবে র‌্যাবের হাতে আটক থাকায় ওই পৌর কাউন্সিলার আবু ইউসুফ বাদলের বক্তব্য জানা যায়নি।

ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিন জানান, তিনি বিষয়টি শুনেছেন। ওই পৌর কাউন্সিলার যদি সত্যিই কোন অপরাধ বা অবৈধভাবে কারো নিকট থেকে টাকা নিয়ে থাকেন-তা হলে তাকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd