রামগঞ্জে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে কলেজ ছাত্রের শ্লীতাহানী

আবু তাহের, রামগঞ্জ  ঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে নুসরাত জাহান মিমি নামের ৪র্থ শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীতাহানীর অভিযোগ উঠেছে। রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর বেপারী বাড়ির মোস্তফা মিয়ার মাষ্টার্স পড়ুয়া বখাটে ছেলে মোহন হোসেন ওই শ্লীতাহানির ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানাগেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বিকেলে রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর ওয়ার্ডের বেপারী বাড়ির সামনে। শ্লীতাহানির শিকার ওই ছাত্রী সোনাপুর ওয়ার্ডের ইনার বাড়ির মোঃ মন্নান মিয়ার মেয়ে। সৃষ্ট ঘটনায় শিক্ষার্থী মিমির বাবা মন্নান মিয়া বাদী হয়ে ২৮ জুলাই (মঙ্গলবার) রামগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ দায়েরের পর থেকে বখাটে মোহন পলাতক রয়েছে।
স্থানীয় ও মিমির পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর ইনার বাড়ির ৪র্থ শ্রেনীতে পড়ুয়া মেয়ে নুসরাত জাহান মিমি একই ওয়ার্ডের পাশ্ববর্তী বেপারী বাড়ির বখাটে মোহন হোসেনের ঘরের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় শিশু মিমিকে একা পেয়ে জোর পূর্বক মোহনের ঘরের পাশে টয়লেটের ভিতরে নিয়ে যায়। এসময় মোহন জোরপূর্বক ওই ছাত্রীর সেলোয়ার খোলার চেষ্টা করলে সে চিৎকার ও চেচামেসি শুরু করে। পরে বাড়ির লোকজন চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে এলে মোহন দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এসময় মোহনের মা নুরজাহান বেগম ওই ছাত্রীকে বুঝিয়ে শুনিয়ে বাড়িতে গিয়ে তার মায়ের কাছে বিষয়টি না বলার জন্য অনুরোধ করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। একপর্যায়ের শিশু মিমির বাবা মা কোন উপায়ন্তর না দেখে রামগঞ্জ থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করেছেন। নাম প্রকাশে অনিশ্চুক বেপারী বাড়ির কয়েকজন জানান, এর আগেও আমাদের বাড়িতে ওই বখাটে মোহন বেশ কয়েকটি নারী সংক্রান্ত ঘটনা ঘটিয়েছেন।
মোহনের মা নূর জাহান বেগম বলেন, মিমি ছোট মেয়ে। আমার ছেলে ওকে হালকা আদর করতে চেয়েছে। এজন্য মেয়েটি ভয়ে চিৎকার করেছে। তাকে শ্লীতাহানীর প্রশ্নই আসেনা। বর্তমানে আমার ছেলে মোহন বাড়িতে নেই। সে বাড়িতে আসলে বিস্তারিত জানতে পারবেন।
নুসরাত জাহান মিমির মা স্বপ্না বেগম জানান, মেয়ে মিমির ভিতরে এখন ভয় আর আতংকে দিন অতিবাহিত করছে। খাওয়া-দাওয়া খেতে চায়না। আমি প্রশাসনের কাছে বখাটে লম্পট মোহনের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি।
রামগঞ্জ থানার (ওসি তদন্ত) একেএম ফজলুল হক জানান, নুসরাত জাহান মিমির বাবা মা থানায় এসে অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত চলমান। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» হাতিয়ায় বোনকে গলা টিপে হত্যা করল ভাই

» সোনাইমুড়ীর জয়াগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তরুন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের মৃত্যু

» বেগমগঞ্জে গোসল নিয়ে দ্বন্ধে যুবককে হত্যা, আটক ৫

» সোনাইমুড়ীতে পারিবারিক বিরোধে অবরুদ্ধ এক পরিবারের মানবেতর জীবন-যাপন

» করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় বেগমগঞ্জের যুবকের মৃত্যু

» ইসলামিক ফোরাম অব আফ্রিকা ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

» সুবর্ণচরে বয়স্ক ভাতার ঘুষ নিয়ে দ্বন্ধের জের ধরে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৩

» সোনাইমুড়ীতে ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর পরিবারকে এলাকা ছাড়ার হুমকি

» নোয়াখালীতে সুদের টাকার জন্য ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ, লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

» চাটখিলের খিলপাড়াতে ইসলামী ব্যাংকের ২য় শাখার কার্যক্রম শুরু

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

রামগঞ্জে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে কলেজ ছাত্রের শ্লীতাহানী

আবু তাহের, রামগঞ্জ  ঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে নুসরাত জাহান মিমি নামের ৪র্থ শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে শ্লীতাহানীর অভিযোগ উঠেছে। রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর বেপারী বাড়ির মোস্তফা মিয়ার মাষ্টার্স পড়ুয়া বখাটে ছেলে মোহন হোসেন ওই শ্লীতাহানির ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানাগেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বিকেলে রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর ওয়ার্ডের বেপারী বাড়ির সামনে। শ্লীতাহানির শিকার ওই ছাত্রী সোনাপুর ওয়ার্ডের ইনার বাড়ির মোঃ মন্নান মিয়ার মেয়ে। সৃষ্ট ঘটনায় শিক্ষার্থী মিমির বাবা মন্নান মিয়া বাদী হয়ে ২৮ জুলাই (মঙ্গলবার) রামগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ দায়েরের পর থেকে বখাটে মোহন পলাতক রয়েছে।
স্থানীয় ও মিমির পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর ইনার বাড়ির ৪র্থ শ্রেনীতে পড়ুয়া মেয়ে নুসরাত জাহান মিমি একই ওয়ার্ডের পাশ্ববর্তী বেপারী বাড়ির বখাটে মোহন হোসেনের ঘরের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় শিশু মিমিকে একা পেয়ে জোর পূর্বক মোহনের ঘরের পাশে টয়লেটের ভিতরে নিয়ে যায়। এসময় মোহন জোরপূর্বক ওই ছাত্রীর সেলোয়ার খোলার চেষ্টা করলে সে চিৎকার ও চেচামেসি শুরু করে। পরে বাড়ির লোকজন চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে এলে মোহন দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এসময় মোহনের মা নুরজাহান বেগম ওই ছাত্রীকে বুঝিয়ে শুনিয়ে বাড়িতে গিয়ে তার মায়ের কাছে বিষয়টি না বলার জন্য অনুরোধ করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। একপর্যায়ের শিশু মিমির বাবা মা কোন উপায়ন্তর না দেখে রামগঞ্জ থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করেছেন। নাম প্রকাশে অনিশ্চুক বেপারী বাড়ির কয়েকজন জানান, এর আগেও আমাদের বাড়িতে ওই বখাটে মোহন বেশ কয়েকটি নারী সংক্রান্ত ঘটনা ঘটিয়েছেন।
মোহনের মা নূর জাহান বেগম বলেন, মিমি ছোট মেয়ে। আমার ছেলে ওকে হালকা আদর করতে চেয়েছে। এজন্য মেয়েটি ভয়ে চিৎকার করেছে। তাকে শ্লীতাহানীর প্রশ্নই আসেনা। বর্তমানে আমার ছেলে মোহন বাড়িতে নেই। সে বাড়িতে আসলে বিস্তারিত জানতে পারবেন।
নুসরাত জাহান মিমির মা স্বপ্না বেগম জানান, মেয়ে মিমির ভিতরে এখন ভয় আর আতংকে দিন অতিবাহিত করছে। খাওয়া-দাওয়া খেতে চায়না। আমি প্রশাসনের কাছে বখাটে লম্পট মোহনের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি।
রামগঞ্জ থানার (ওসি তদন্ত) একেএম ফজলুল হক জানান, নুসরাত জাহান মিমির বাবা মা থানায় এসে অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত চলমান। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd