দক্ষিণ আফ্রিকায় চাটখিলের যুবকের মৃত্যু

মো.শরীফ উদ্দিন, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকেঃ

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রোকাসড্রফ এলাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানার মোহন নামে এক বাংলাদেশি তরুন মৃত্যু বরন করেন।

মোহন দীর্ঘদিন থেকে কিডনি, লিভার সহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। গত দুই সপ্তাহ থেকে ক্রোকাসড্রফের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকে আজ ২৬জানুয়ারি মঙ্গলবার দুপুর ২টার সময় মারা যান।

মোহন নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানার দোলতপুর গ্রামের বড় বাড়ির ছেলে।

তিনি দক্ষিণ আফ্রিকায় ১০ বছর ধরে বসবাস করে আসছিলেন। কাগজপত্রের জটিলতার কারণে দীর্ঘদিন দেশে যেতে পারেননি। কাগজপত্র ঠিক করে ২০১৯ সালে দেশে গিয়ে নভেম্বর মাসে বিয়ে করেন। ২০২০সালের ৩১ডিসেম্বর দেশ থেকে ফিরে আসেন দক্ষিণ আফ্রিকায়। বর্তমানে দেশে তার স্ত্রী, ৫মাস বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» চাটখিলে উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবিরের সাথে শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

» সাংবাদিক মুজাক্কিরকে গুলি করে হত্যা- অজ্ঞাতদের আসামি করে বাবার মামলা

» সেনবাগে স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা, স্বামী আটক

» চাটখিলের সাবেক চেয়ারম্যানের মেধাবী কন্যা তৃষার জন্যে কাঁদছে এলাকাবাসী

» এবার কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক রনির উপর হামলা

» চাটখিলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

» সাংবাদিক মুজাক্কিরের হত্যার বিচারের দাবীতে জেলা ও উপজেলায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ

» দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশিদের মসজিদ উদ্বোধন

» দক্ষিণ আফ্রিকায় হৃদরোগে ফেনীর যুবকের মৃত্যু

» চাটখিলে নোয়াখালী ব্লাড হান্টারের ফ্রী ব্লাড টেস্ট ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

দক্ষিণ আফ্রিকায় চাটখিলের যুবকের মৃত্যু

মো.শরীফ উদ্দিন, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকেঃ

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রোকাসড্রফ এলাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানার মোহন নামে এক বাংলাদেশি তরুন মৃত্যু বরন করেন।

মোহন দীর্ঘদিন থেকে কিডনি, লিভার সহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। গত দুই সপ্তাহ থেকে ক্রোকাসড্রফের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকে আজ ২৬জানুয়ারি মঙ্গলবার দুপুর ২টার সময় মারা যান।

মোহন নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানার দোলতপুর গ্রামের বড় বাড়ির ছেলে।

তিনি দক্ষিণ আফ্রিকায় ১০ বছর ধরে বসবাস করে আসছিলেন। কাগজপত্রের জটিলতার কারণে দীর্ঘদিন দেশে যেতে পারেননি। কাগজপত্র ঠিক করে ২০১৯ সালে দেশে গিয়ে নভেম্বর মাসে বিয়ে করেন। ২০২০সালের ৩১ডিসেম্বর দেশ থেকে ফিরে আসেন দক্ষিণ আফ্রিকায়। বর্তমানে দেশে তার স্ত্রী, ৫মাস বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd