মাঈজদী হাসপাতালের ত্রুটিপূর্ণ লিফটে প্রাণ গেলো চন্দ্রগঞ্জের নারীর

 

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্ক:

অসুস্থ শ্বশুরকে দেখতে এসে হাসপাতালের ক্রটিপূর্ণ লিফটের বক্সে পড়ে জহুরা বেগম (৪০) নামে এক নারীর করুন মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি দুর্ঘটনা বললেও রোগীর স্বজনদের বক্তব্য শুনে বিষয়টি খতিয়ে দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলছে পুলিশ।

রবিবার সন্ধ্যা ৫টার দিকে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর জি-৮ গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেড চতুর্থ তলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত জহুরা বেগম লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের খুরশিদ আলমের স্ত্রী।

নিহতের স্বজনরা বলছেন, গত ২৯ জানুয়ারি জহুরার শ্বশুর আনোয়ারুল ইসলাম সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হন। ওই দিন সন্ধ্যায় তাকে মাইজদী জি-৮ গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতালের চতুর্থ তলার ৪১৭ নম্বর কক্ষে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর থেকে হাসপাতালটির লিফট চতুর্থ তলায় কাজ করছিল না। এ বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার জানালেও তারা কোন প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। দুপুরে অসুস্থ শ্বশুরকে দেখতে ছেলেকে নিয়ে হাসপাতালে আসেন জহুরা। সন্ধ্যায় শ্বশুরকে দেখে ছেলেকে নিয়ে বাড়ি যাওয়ার জন্য হাসপাতালের নিছে নামতে লিফটের কাছে গিয়ে সুইজে চাপ দেন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যে দরজা খুললেও লিফটি পাঁচ তলায় চলে যায়, কিন্তু চার তলায় লিফট আছে ভেবে তিনি ভেতরে পা দিতেই ছিটকে নিছে পড়ে যান। হাসপাতালের লোকজন বিষয়টি দেখতে পেয়ে জহুরাকে উদ্ধার করে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও ত্রুটিপূর্ণ লিফটের কারণেই জহুরার মৃত্যু হয়েছে। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন।

হাসপাতালটির চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক মানিক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চতুর্থ তলায় লিফটি কাজ করছিল না। এ একটি দুর্ঘটনা।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ উদ্দিন জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ মৃত্যুর বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই সাথে ওই লিফটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» ইসলামিক ফোরাম অফ আফ্রিকার সভাপতি মোশাররফ হোসাইন সেক্রেটারি ইব্রাহীম আহমেদ নির্বাচিত

» নোয়াখালীতে ঘরের সামনে থেকে তুলে নিয়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

» চাটখিলে ভীমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত

» চাটখিলে অল অফ বিডির জন্মদিনে মায়েদের পা ধুয়ে দিলো সন্তানরা

» সাংবাদিক মুজাক্কিরের কবর জিয়ারত করলেন বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ

» রামগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ধর্ষিতা কলেজ ছাত্রী

» রামগঞ্জের সাবেক ছাত্রদল নেতা আরিফের সন্ধান চান পরিবার

» চাটখিলে উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবিরের সাথে শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

» সাংবাদিক মুজাক্কিরকে গুলি করে হত্যা- অজ্ঞাতদের আসামি করে বাবার মামলা

» সেনবাগে স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা, স্বামী আটক

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

মাঈজদী হাসপাতালের ত্রুটিপূর্ণ লিফটে প্রাণ গেলো চন্দ্রগঞ্জের নারীর

 

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্ক:

অসুস্থ শ্বশুরকে দেখতে এসে হাসপাতালের ক্রটিপূর্ণ লিফটের বক্সে পড়ে জহুরা বেগম (৪০) নামে এক নারীর করুন মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি দুর্ঘটনা বললেও রোগীর স্বজনদের বক্তব্য শুনে বিষয়টি খতিয়ে দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলছে পুলিশ।

রবিবার সন্ধ্যা ৫টার দিকে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর জি-৮ গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেড চতুর্থ তলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত জহুরা বেগম লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের খুরশিদ আলমের স্ত্রী।

নিহতের স্বজনরা বলছেন, গত ২৯ জানুয়ারি জহুরার শ্বশুর আনোয়ারুল ইসলাম সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হন। ওই দিন সন্ধ্যায় তাকে মাইজদী জি-৮ গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতালের চতুর্থ তলার ৪১৭ নম্বর কক্ষে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর থেকে হাসপাতালটির লিফট চতুর্থ তলায় কাজ করছিল না। এ বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার জানালেও তারা কোন প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। দুপুরে অসুস্থ শ্বশুরকে দেখতে ছেলেকে নিয়ে হাসপাতালে আসেন জহুরা। সন্ধ্যায় শ্বশুরকে দেখে ছেলেকে নিয়ে বাড়ি যাওয়ার জন্য হাসপাতালের নিছে নামতে লিফটের কাছে গিয়ে সুইজে চাপ দেন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যে দরজা খুললেও লিফটি পাঁচ তলায় চলে যায়, কিন্তু চার তলায় লিফট আছে ভেবে তিনি ভেতরে পা দিতেই ছিটকে নিছে পড়ে যান। হাসপাতালের লোকজন বিষয়টি দেখতে পেয়ে জহুরাকে উদ্ধার করে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও ত্রুটিপূর্ণ লিফটের কারণেই জহুরার মৃত্যু হয়েছে। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন।

হাসপাতালটির চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক মানিক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চতুর্থ তলায় লিফটি কাজ করছিল না। এ একটি দুর্ঘটনা।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ উদ্দিন জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ মৃত্যুর বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই সাথে ওই লিফটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd