সোনাগাজীতে সুন্দরী মহিলার সাথে ২ নেতার মাদক সেবনের ভিডিও ভাইরাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ফেনী  ঃ
ভাড়া বাসায় সুন্দরী এক নারীর সাথে সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ইফতেখার হোসেনের ইয়াবা ও রাস্তায় দাঁড়িয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব নবী ফরহাদ সহ ফেন্সিডিল সেবনের ভিডিও সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। যা হতবাক করেছে আ’লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ জনগনকে।

মঙ্গলবার ( ১৮ সেপ্টেম্বর) বিকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন আইডি থেকে ভিডিওটি আপলোড করা হয়। মুহুর্তের মধ্যে সেটি ভাইরাল হয়ে পুরো জেলার ছাত্রলীগ রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়। ভিডিওটি প্রকাশের পর থেকে সোনাগাজী আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষের মাঝে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। ভিডিওটি কোথায় এবং কখন ধারন করা হয়েছে সেটি পোষ্টে উল্লেখ করা না হলেও ধারনা করা হচ্ছে ফেনী শহরের মাষ্টার পাড়ায় ছাত্রলীগ নেতার ভাড়া বাসায় গোপনে কেউ ধারন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট করে।

সরকারের শীর্ষ মহল ও আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছাত্রলীগ কে মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করার নির্দেশ দেন। ভয়াল মাদকের কবল থেকে দেশ কে রক্ষা করতে সরকার মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছে। সরকারের নির্দেশের পর আইনশৃংখলা বাহিনী মাদক সেবী ও বিক্রেতার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে। অভিযানে এ পর্যন্ত সারা দেশে প্রায় তিনশ মাদক কারবারি বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে ও দশ সহস্রাধিক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে।

ফেনী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি জেলা আইনশৃংখলা কমিটির বেঠকে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বনের ঘোষনা দেন। জেলার আইনশৃংখলা বাহিনী মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত রাখার মধ্যে সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের এ নেতার ইয়াবা ও ফেন্সিডিল সেবনের ভিডিও ছড়িয়ে পড়লো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

২৭.৫৮ মিনিটের ভিডিওতে দেখা গেছে, ভাড়া বাসায় ছাত্রলীগ নেতা খালি শরীরে খাটের উপর বসে মৃদু স্বরে ডিভিডিতে হিন্দি গান বাজিয়ে সিগারেট ফুঁকছে।ভিডিওতে অন্য কারো ছবি দেখা না গেলেও কথার আওয়াজে বুঝা যাচ্ছে বাসাতে একাধিক পুরুষ ব্যক্তি অবস্থান করছে। কিছুক্ষন পর সুন্দরী এক নারী কক্ষটিতে প্রবেশ করে ছাত্রলীগ নেতার শরীর ঘেষে খাটের উপর বসে। তারপর তারা ইয়াবা ও সেবনের সরঞ্জাম বের করে ব্যবহারের প্রস্তুতি নেয়। একপর্যায়ে সুন্দরী নারী নিজ হাতে ছাত্রলীগ নেতার মুখে ইয়াবা তুলে দেন।

নারীর পরিচয় জানা না গেলেও ধারনা করা হচ্ছে সে ছাত্রলীগ নেতার প্রেমিকা অথবা দেহ ব্যবসায়ী হবে। তবে বিশ্বস্থ একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার নেতৃত্বে ফেনী ও সোনাগাজীতে কয়েকজন নারীর নেতৃত্বে একটি গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে, যারা আর্থিক অবস্থা সম্পন্ন লোকদের টার্গেট করে ফেসবুকে প্রেমের অভিনয় করে কৌশলে টাকা হাতিয়ে নেয়। সোনাগাজীতে গত কয়েক মাসে এ ধরনের বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটলেও মান সম্মানের ভয়ে ভুক্তভোগীরা মুখ খোলেনি।

অপর একটি ভিডিওতে দেখা গেছে ছাত্রলীগ নেতা ইফতেখার তার সহযোগী আমিরাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আইয়ুব নবী ফরহাদ সহ রাস্তার পাশে প্রকাশ্যে দাড়িয়ে ফেন্সিডাইল ক্রয় করে সেবন করছে। ভিডিও দেখে বুঝা যাচ্ছে স্থানটি ফুলগাজী উপজেলার কালিরহাট সিমান্তের মাদক স্পট। বাংলাদেশ-ভারত সিমান্তের এ স্পটটি জেলার মাদকের অন্যতম আখড়া হিসেবে পরিচিত।

বিএনপি পরিবারের সন্তান ইফতেখার ২০১৫ সালে ফেনী-৩ (সোনাগাজী-দাগনভুঞা) আসনের স্বতন্ত্র এমপি রহিম উল্যাহর সমর্থকদের সাথে বিরোধে জড়িয়ে ছাত্রলীগে যোগ দেয়। এমপির সাথে জেলা ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের বিরোধের জেরে ইফতেখার আওয়ামীলীগ নেতাদের সহায়তা পায়। গত বছর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক পদে মনোনিত হয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি রবিন সহ আওয়ামীলীগ যুবলীগের অনেক নেতাকর্মীর সাথে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে ১০/১২ টি মামলা হলেও জামিন না নিয়ে সে বীরদর্পে ঘুরে বেড়ালেও অজ্ঞাত কারনে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেনি।উপজেলার সর্বত্র মাদক বিক্রি ও সেবনের কানাঘুষা থাকলেও তার বাহিনীর ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস করেনি। ইয়াবা ও ফেন্সিডিল সেবনের ভিডিও প্রকাশের পর তার মাদক বিক্রির সম্পৃক্ততা জেনে ভুক্তভোগীরা মুখ খুলতে শুরু করেছে। তার বিরুদ্ধে মোবাইলে জনপ্রতিনিধিদের হুমকি দিয়ে বিকাশের মাধ্যমে চাঁদা আদায়ের বহু অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও কেউ তাদের অপকর্মের প্রতিবাদ করলে ফেসবুকে ফেক আইডিতে হুমকি ধমকি সহ চরিত্র হরনের গুরতর অভিযোগ রয়েছে।

সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল মোতালেব চৌধুরী রবিন বলেন, ব্যক্তির অপরাধের দায়ভার ছাত্রলীগ বহন করবেনা। জেলা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ বিষয়টি আমলে নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

ফেনী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন ফিরোজ জানিয়েছেন, বিষয়টি ইতিমধ্যে বিভিন্ন মাধ্যমে জেনেছি।আমাদেরও অভিভাবক নিজাম উদ্দিন হাজারীকে জানানো হয়েছে। তিনি যে সিদ্ধান্ত দিবে সেটা বাস্তবায়ন করা হবে। তবে কোন মাদকাসক্তের ছাত্রলীগে স্থান হবেনা।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম রাব্বানির সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ছাত্রলীগ নেতার ইয়াবা সেবনের খবরটি ফোনে জেনেছি।সত্য হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভুট্টোর কাছে যুবলীগ নেতার মাদক সেবনের বিষয়ে জানতে চায়লে তিনি জানান, আমি এই বিষয় সম্পর্কে অবগত নই।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক মোয়াজ্জেম হোসেন জানিয়েছে, অনেকে ফোন করে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওির বিষয়ে অবহিত করেছে।বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার ব্যবহ্নত মুঠোফোন বন্দ থাকায় যোগাযোগ করেও তার বক্তব্য জানা যায়নি।

 

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» বেগমগঞ্জে ঈদের রাতে আ,লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সহ আহত ৯ গ্রেফতার ৩

» নোয়াখালী সিভিল সার্জন অফিসের ফেসবুক আইডি হ্যাক

» চাটখিলে বাবার বাড়ী থেকে ১ সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

» করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির কয়েক ঘন্টা পরে মারা গেলেন বেগমগঞ্জের একজন

» স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘উইফরইউ পাঠশালা’র ১২০ শিক্ষার্থী পেল ঈদ উপহার ও নগদ অর্থ

» নোয়াখালীতে নুতন আক্রান্ত ৭৭, চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগ বাদে সব বন্ধ

» নোয়াখালীতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে সেনাবাহিনীর

» ৫ম ধাপে করোনা দুর্যোগে অসচ্ছল পরিবারের পাশে সোনাচাকা ইসলামী কালচারাল সেন্টার

» চাটখিলে ব্যারিস্টার মনির হোসেন কাজলের উদ্যোগে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

» সুবর্ণচর উপজেলা যুবদল ও ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ৩৫০ পরিবারকে ঈদ উপহার বিতরন

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

সোনাগাজীতে সুন্দরী মহিলার সাথে ২ নেতার মাদক সেবনের ভিডিও ভাইরাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ফেনী  ঃ
ভাড়া বাসায় সুন্দরী এক নারীর সাথে সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ইফতেখার হোসেনের ইয়াবা ও রাস্তায় দাঁড়িয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব নবী ফরহাদ সহ ফেন্সিডিল সেবনের ভিডিও সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। যা হতবাক করেছে আ’লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ জনগনকে।

মঙ্গলবার ( ১৮ সেপ্টেম্বর) বিকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন আইডি থেকে ভিডিওটি আপলোড করা হয়। মুহুর্তের মধ্যে সেটি ভাইরাল হয়ে পুরো জেলার ছাত্রলীগ রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়। ভিডিওটি প্রকাশের পর থেকে সোনাগাজী আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষের মাঝে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। ভিডিওটি কোথায় এবং কখন ধারন করা হয়েছে সেটি পোষ্টে উল্লেখ করা না হলেও ধারনা করা হচ্ছে ফেনী শহরের মাষ্টার পাড়ায় ছাত্রলীগ নেতার ভাড়া বাসায় গোপনে কেউ ধারন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট করে।

সরকারের শীর্ষ মহল ও আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছাত্রলীগ কে মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করার নির্দেশ দেন। ভয়াল মাদকের কবল থেকে দেশ কে রক্ষা করতে সরকার মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছে। সরকারের নির্দেশের পর আইনশৃংখলা বাহিনী মাদক সেবী ও বিক্রেতার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে। অভিযানে এ পর্যন্ত সারা দেশে প্রায় তিনশ মাদক কারবারি বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে ও দশ সহস্রাধিক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে।

ফেনী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি জেলা আইনশৃংখলা কমিটির বেঠকে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বনের ঘোষনা দেন। জেলার আইনশৃংখলা বাহিনী মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত রাখার মধ্যে সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের এ নেতার ইয়াবা ও ফেন্সিডিল সেবনের ভিডিও ছড়িয়ে পড়লো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

২৭.৫৮ মিনিটের ভিডিওতে দেখা গেছে, ভাড়া বাসায় ছাত্রলীগ নেতা খালি শরীরে খাটের উপর বসে মৃদু স্বরে ডিভিডিতে হিন্দি গান বাজিয়ে সিগারেট ফুঁকছে।ভিডিওতে অন্য কারো ছবি দেখা না গেলেও কথার আওয়াজে বুঝা যাচ্ছে বাসাতে একাধিক পুরুষ ব্যক্তি অবস্থান করছে। কিছুক্ষন পর সুন্দরী এক নারী কক্ষটিতে প্রবেশ করে ছাত্রলীগ নেতার শরীর ঘেষে খাটের উপর বসে। তারপর তারা ইয়াবা ও সেবনের সরঞ্জাম বের করে ব্যবহারের প্রস্তুতি নেয়। একপর্যায়ে সুন্দরী নারী নিজ হাতে ছাত্রলীগ নেতার মুখে ইয়াবা তুলে দেন।

নারীর পরিচয় জানা না গেলেও ধারনা করা হচ্ছে সে ছাত্রলীগ নেতার প্রেমিকা অথবা দেহ ব্যবসায়ী হবে। তবে বিশ্বস্থ একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার নেতৃত্বে ফেনী ও সোনাগাজীতে কয়েকজন নারীর নেতৃত্বে একটি গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে, যারা আর্থিক অবস্থা সম্পন্ন লোকদের টার্গেট করে ফেসবুকে প্রেমের অভিনয় করে কৌশলে টাকা হাতিয়ে নেয়। সোনাগাজীতে গত কয়েক মাসে এ ধরনের বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটলেও মান সম্মানের ভয়ে ভুক্তভোগীরা মুখ খোলেনি।

অপর একটি ভিডিওতে দেখা গেছে ছাত্রলীগ নেতা ইফতেখার তার সহযোগী আমিরাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আইয়ুব নবী ফরহাদ সহ রাস্তার পাশে প্রকাশ্যে দাড়িয়ে ফেন্সিডাইল ক্রয় করে সেবন করছে। ভিডিও দেখে বুঝা যাচ্ছে স্থানটি ফুলগাজী উপজেলার কালিরহাট সিমান্তের মাদক স্পট। বাংলাদেশ-ভারত সিমান্তের এ স্পটটি জেলার মাদকের অন্যতম আখড়া হিসেবে পরিচিত।

বিএনপি পরিবারের সন্তান ইফতেখার ২০১৫ সালে ফেনী-৩ (সোনাগাজী-দাগনভুঞা) আসনের স্বতন্ত্র এমপি রহিম উল্যাহর সমর্থকদের সাথে বিরোধে জড়িয়ে ছাত্রলীগে যোগ দেয়। এমপির সাথে জেলা ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের বিরোধের জেরে ইফতেখার আওয়ামীলীগ নেতাদের সহায়তা পায়। গত বছর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক পদে মনোনিত হয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি রবিন সহ আওয়ামীলীগ যুবলীগের অনেক নেতাকর্মীর সাথে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে ১০/১২ টি মামলা হলেও জামিন না নিয়ে সে বীরদর্পে ঘুরে বেড়ালেও অজ্ঞাত কারনে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেনি।উপজেলার সর্বত্র মাদক বিক্রি ও সেবনের কানাঘুষা থাকলেও তার বাহিনীর ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস করেনি। ইয়াবা ও ফেন্সিডিল সেবনের ভিডিও প্রকাশের পর তার মাদক বিক্রির সম্পৃক্ততা জেনে ভুক্তভোগীরা মুখ খুলতে শুরু করেছে। তার বিরুদ্ধে মোবাইলে জনপ্রতিনিধিদের হুমকি দিয়ে বিকাশের মাধ্যমে চাঁদা আদায়ের বহু অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও কেউ তাদের অপকর্মের প্রতিবাদ করলে ফেসবুকে ফেক আইডিতে হুমকি ধমকি সহ চরিত্র হরনের গুরতর অভিযোগ রয়েছে।

সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল মোতালেব চৌধুরী রবিন বলেন, ব্যক্তির অপরাধের দায়ভার ছাত্রলীগ বহন করবেনা। জেলা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ বিষয়টি আমলে নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

ফেনী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন ফিরোজ জানিয়েছেন, বিষয়টি ইতিমধ্যে বিভিন্ন মাধ্যমে জেনেছি।আমাদেরও অভিভাবক নিজাম উদ্দিন হাজারীকে জানানো হয়েছে। তিনি যে সিদ্ধান্ত দিবে সেটা বাস্তবায়ন করা হবে। তবে কোন মাদকাসক্তের ছাত্রলীগে স্থান হবেনা।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম রাব্বানির সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ছাত্রলীগ নেতার ইয়াবা সেবনের খবরটি ফোনে জেনেছি।সত্য হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভুট্টোর কাছে যুবলীগ নেতার মাদক সেবনের বিষয়ে জানতে চায়লে তিনি জানান, আমি এই বিষয় সম্পর্কে অবগত নই।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক মোয়াজ্জেম হোসেন জানিয়েছে, অনেকে ফোন করে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওির বিষয়ে অবহিত করেছে।বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার ব্যবহ্নত মুঠোফোন বন্দ থাকায় যোগাযোগ করেও তার বক্তব্য জানা যায়নি।

 

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd