ADS170638-2

পৃথক দুই কেন্দ্রে ২ জন পরীক্ষার্থীর জন্য ২৪ জন কর্মকর্তা!

 

তাবারক হোসেন আজাদঃ
লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার এলএম পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও চরবংশী এসএম আজিজিয়া উচ্চ বিদ্যালয় পৃথক দুটি এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে শনিবার অনুষ্ঠিত ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষায় মাত্র ২জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। দুটি কেন্দ্রে ২জন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় ১২জন করে ২৪জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত রয়েছেন।
জানা গেছে, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় শনিবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে ক্যারিয়ার শিক্ষা (বিষয় কোড- ১৫৬) বিষয়ের পরীক্ষা। ২০১৬ সালের সিলেবাস অনুযায়ী নির্ধারিত বিষয়। যা ওই বছর যশোর শিক্ষা বোর্ডে প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার কারণে বোড কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা স্থগিত করেছিলেন।
এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র এলএম পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র (রায়পুর -১) কেন্দ্র সচিব মাহ্বুবুর রহমান জানান, ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষার্থীর সংখ্যা মাত্র একজন। এই বিষয়টি ২০১৬ সালের পুরাতন সিলেবাসের অন্তর্ভ‚ক্ত। এ কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে বিজ্ঞান বিভাগের সফিকুল ইসলাম নামের বামনী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন পরীক্ষার্থী। একজন পরীক্ষার্থীর এই পরীক্ষা নেয়ার জন্য কেন্দ্রে ১২জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছেন।
চরবংশী এসএম আজিজয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র (রায়পুর -২) সচিব মোসলেহ্ উদ্দিন জানান, ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষার্থী মাত্র একজন। হায়দরগঞ্জ রোকেয়া হাসমতের নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মানবিক বিভাগের তানিয়া আক্তার নামের পরীক্ষার্থী। একজন পরীক্ষার্থীর এই পরীক্ষা নেয়ার জন্য কেন্দ্রে ১২জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছেন।
পৃথক এক কেন্দ্রের দায়িত্ব ব্যক্তিরা হলেন-কেন্দ্র সচিব-একজন, সহকারী কেন্দ্র সচিব ২জন, হল সুপার ২জ, কক্ষ পরিদর্শক ২জন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পক্ষে কর্মকর্তা ৪ জন। পুলিশ সদস্য রয়েছেন ২জন, অফিস সহকারী ৪জন এবং ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী ৫জন রয়েছেন। সব মিলিয়ে পৃথক দুই কেন্দ্রে ২জন পরীক্ষার্থীর জন্য ২৪জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছেন।
রায়পুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ কামাল হোসেন জানান, পরীক্ষার আইন মেনেই এই পরীক্ষা গ্রহণ করা হচ্ছে। পরীক্ষা কেন্দ্রে জনবল বাড়ানো বা কমানোর কোনো সুযোগ নেই।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» অবশেষে এক মাস পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার, গ্রেপ্তার প্রেমিক

» ফেনী সরকারী কলেজের শূন্যপদে ছাত্রলীগ সহ সভাপতি হলেন রাত্রী

» কোম্পানীগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদে আটকে রেখে বিচারপ্রার্থী নারীকে চেয়ারম্যানের নির্যাতন

» নকলে বাধা দেয়ায় মুজিব কলেজের শিক্ষকের উপর হামলা, প্রতিবাদে মানববন্ধন

» নেতা কর্মীদের উচ্ছাসে চাটখিলে জাহাঙ্গীর আলমকে গণসংবর্ধনা

» ফেনীতে পুলিশ সুপারের গাড়ী উল্টে দেহরক্ষী নিহত পুলিশ সুপারসহ আহত-৩

» চাটখিলে পল্লী বিদ্যুৎতের ভুতুড়ে বিল, গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ

» চাটখিলের পাঁচগাঁও ইউপি নির্বাচনে আ,লীগের ১ ও বিএনপির ৩ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

» পুকুরে ডুবে প্রথম শ্রেণির দুই ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

» কোম্পানীগঞ্জে স্বামীর বাড়ি যাওয়া নিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

add pn
সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
ADS170638-2
,

পৃথক দুই কেন্দ্রে ২ জন পরীক্ষার্থীর জন্য ২৪ জন কর্মকর্তা!

 

তাবারক হোসেন আজাদঃ
লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার এলএম পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও চরবংশী এসএম আজিজিয়া উচ্চ বিদ্যালয় পৃথক দুটি এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে শনিবার অনুষ্ঠিত ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষায় মাত্র ২জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। দুটি কেন্দ্রে ২জন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় ১২জন করে ২৪জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত রয়েছেন।
জানা গেছে, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় শনিবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে ক্যারিয়ার শিক্ষা (বিষয় কোড- ১৫৬) বিষয়ের পরীক্ষা। ২০১৬ সালের সিলেবাস অনুযায়ী নির্ধারিত বিষয়। যা ওই বছর যশোর শিক্ষা বোর্ডে প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার কারণে বোড কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা স্থগিত করেছিলেন।
এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র এলএম পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র (রায়পুর -১) কেন্দ্র সচিব মাহ্বুবুর রহমান জানান, ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষার্থীর সংখ্যা মাত্র একজন। এই বিষয়টি ২০১৬ সালের পুরাতন সিলেবাসের অন্তর্ভ‚ক্ত। এ কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে বিজ্ঞান বিভাগের সফিকুল ইসলাম নামের বামনী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন পরীক্ষার্থী। একজন পরীক্ষার্থীর এই পরীক্ষা নেয়ার জন্য কেন্দ্রে ১২জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছেন।
চরবংশী এসএম আজিজয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র (রায়পুর -২) সচিব মোসলেহ্ উদ্দিন জানান, ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষার্থী মাত্র একজন। হায়দরগঞ্জ রোকেয়া হাসমতের নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মানবিক বিভাগের তানিয়া আক্তার নামের পরীক্ষার্থী। একজন পরীক্ষার্থীর এই পরীক্ষা নেয়ার জন্য কেন্দ্রে ১২জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছেন।
পৃথক এক কেন্দ্রের দায়িত্ব ব্যক্তিরা হলেন-কেন্দ্র সচিব-একজন, সহকারী কেন্দ্র সচিব ২জন, হল সুপার ২জ, কক্ষ পরিদর্শক ২জন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পক্ষে কর্মকর্তা ৪ জন। পুলিশ সদস্য রয়েছেন ২জন, অফিস সহকারী ৪জন এবং ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী ৫জন রয়েছেন। সব মিলিয়ে পৃথক দুই কেন্দ্রে ২জন পরীক্ষার্থীর জন্য ২৪জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত আছেন।
রায়পুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ কামাল হোসেন জানান, পরীক্ষার আইন মেনেই এই পরীক্ষা গ্রহণ করা হচ্ছে। পরীক্ষা কেন্দ্রে জনবল বাড়ানো বা কমানোর কোনো সুযোগ নেই।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd