ADS170638-2

নোয়াখালীতে মানষিক ভারসাম্যহীন মায়ের পিটুনিতে ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্কঃ

নোয়াখালী সদরের ছালেপুর গ্রামে মানষিক ভারসাম্যহীন (পাগল) মায়ের বিরুদ্ধে ৪ বছরের শিশু আইমন হোসেন কে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে আজ বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছালেপুর গ্রামের স্থানীয় ট্রাক হেলপারের মানসিক ভারসাম্যহীন স্ত্রী বৃহস্পতিবার রাতে তার ৪ বছরের সন্তান আইমন কে পিটিয়ে হত্যা করেছে।
সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীর উদ্দিন ঘটনার সত্যত্যা স্বীকার বলেন, আমরা ঘটনাটি তদন্ত করছি।

প্রচ্ছদে ব্যবহৃদ ছবিঃ প্রতিকী।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» সুবর্ণচরের থানার হাটে শর্ট ক্রীজ রৌপ্যকাপ ক্রিকেটের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

» ফেনীতে বিষাক্ত সাপের দংশনে যুবকের মৃত্যু

» কবিরহাটে চোরাই মোটর সাইকেলসহ ছাত্রলীগ সভাপতি র‍্যাবের হাতে আটক

» সেনবাগে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ

» চাটখিলে নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

» বাবার দেয়া বাইকেই প্রাণ গেল কলেজ পড়ুয়া ছেলের

» এখনো অধরা সুবর্ণচরে কিশোরী গণধর্ষণের সে ধর্ষকরা

» কোম্পানীগঞ্জে সিএনজি চাপায় ৪ বছরের শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু

» আবারো সেই সুবর্ণচর, এবার গণধর্ষনের শিকার ১৪ বছরের কিশোরী

» রামগঞ্জে বাল্য বিয়ের প্রস্তুতির দায়ে কনের অর্থদন্ড

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

add pn
সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
ADS170638-2
,

নোয়াখালীতে মানষিক ভারসাম্যহীন মায়ের পিটুনিতে ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্কঃ

নোয়াখালী সদরের ছালেপুর গ্রামে মানষিক ভারসাম্যহীন (পাগল) মায়ের বিরুদ্ধে ৪ বছরের শিশু আইমন হোসেন কে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে আজ বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছালেপুর গ্রামের স্থানীয় ট্রাক হেলপারের মানসিক ভারসাম্যহীন স্ত্রী বৃহস্পতিবার রাতে তার ৪ বছরের সন্তান আইমন কে পিটিয়ে হত্যা করেছে।
সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীর উদ্দিন ঘটনার সত্যত্যা স্বীকার বলেন, আমরা ঘটনাটি তদন্ত করছি।

প্রচ্ছদে ব্যবহৃদ ছবিঃ প্রতিকী।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd