সোনাইমুড়ীতে ইউএনওর প্রচেষ্টায় পাল্টে গেছে উপজেলা পরিষদের দৃশ্যপট

 

মনিরুল ইসলাম ফয়সাল, সোনাইমুড়ী থেকেঃ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলা পরিষদের দৃশ্যপট ইউএনও টিনা পালের প্রচেষ্টায় পাল্টাতে শুরু করেছে। বেড়েছে জনসেবার মান, কমেছে দালাল দৌরাত্ম্য। প্রশাসনিক কাঠামো হয়েছে অত্যন্ত শক্তিশালী।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালে উপজেলা পরিষদ কার্যক্রম শুরু হলেও পরিবেশের দিক দিয়ে তেমন কোনো উন্নয়ন হয়নি। বর্তমান ইউএনও টিনা পালের আমলে উপজেলা প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু মৌরাল,জলাবদ্ধ স্থান মাটি দিয়ে বরাট করে খেলার মাঠ, ফুল, ফল আর ঔষধি গাছ লাগিয়ে সৃষ্টি করেছেন নজরকাঁড়া পরিবেশ।
এখানকার অফিসগুলো ছিলো দালালদের দখলে। অনিয়মের আখড়া উচ্ছেদ করে উপজেলা পরিষদকে সু-শৃঙ্খল পরিবেশে ঢেলে সাজান বর্তমান ইউএনও। তিনি যোগদানের পর উপজেলা পরিষদের দুর্বল প্রশাসনকে চাঙ্গা করে তোলেন যেখানে এসে মানুষ হয়রানির পরিবর্তে দ্রুত কাজ সমাধান করতে পারছেন। ইউএনওর কঠোর তৎপরতার মুখে অফিসগুলোতে বেড়েছে জনসেবার মান । উপজেলা পরিষদ এলাকায় আইন শৃঙ্খলার ঘটেছে ব্যাপক উন্নয়ন । উপজেলার বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নমূলক কাজে কোন ধরনের অনিয়ম দেখা দিলে বিল-প্রদান থেকে তিনি বিরত থাকেন। তার তৎপরতায় জনপ্রতিনিধিদের কাজে সৃষ্টি হয়েছে স্বচ্ছতা ও গতিশীলতা। নিয়মিত মাসিক মিটিংয়ে তিনি কর্মকর্তা কর্মচারী সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে সততা ও নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন এবং কারো কাজে গাফিলাতি ও অনিয়মের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানিয়ে দেন। এদিকে উপজেলা প্রকৌশলী, কৃষি, ত্রাণ, মৎস্য, পশু, শিক্ষা, সমবায়, সমাজসেবা, প্রকল্প বাস্তবায়ন, যুব উন্নয়নসহ বিভিন্ন অফিসে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মের গতিশীলতাও প্রশংসনীয়। উপজেলার বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতেও স্বচ্ছতা, শিক্ষারমান ও শিক্ষকদের কাজের গতিশীলতা বেড়েছে। স্কুল ফাঁকিবাজ, নকল আদানপ্রদানে সহায়তা করা শিক্ষকদের শাস্তি ও কঠোর হুশিঁয়ার আরোপ করেন। বাল্যবিবাহ বন্ধে নিয়েছে কঠোর ব্যবস্থা। স্থানীয় বাজার গুলোতে জিনিসপত্রের দাম স্থিতিশীল রাখতে চালাচ্ছে ঘনঘন অভিযান। সপ্তাহ একদিন গনশুনানি ছাড়াও প্রতিটি ইউনয়নে গিয়ে গরিব, অসহায়, বৃদ্ধা , প্রতিবন্ধী শিশুরা সঠিকভাবে সরকারি সুযোগসুবিধা পাচ্ছে কিনা সে ব্যাপারে রাখছেন খোঁজখবর।
নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক ইউএনও অফিসের
একজন কর্মচারী জানান, ইউএনও স্যার সরকারী আইনের বাইরে কোন কাজ করেন না।
তিনি যোগদানের পর থেকে মাদক নির্মূলের অঙ্গীকার নিয়ে অসংখ্য মাদক বিক্রেতাকে দিয়েছেন শাস্তি। সবার আগে দুর্ঘটার কবলে পড়া মানুষদের প্রাধান্য দিয়ে সরকারি ঘর নির্মান, গভীর রাতে বাড়ী বাড়ী গিয়ে শীতার্ত মানুষকে কম্বল বিতরণ করে নজির স্থাপন করেছেন। তার সততা এবং কঠোর পরিশ্রমে উপজেলায় ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে।
ইউএনও টিনা পাল জানান, বর্তমান সরকার উন্নয়নের মাধ্যমে দেশকে অনেক এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, সরকারী সকল সুযোগসুবিধা যাতে জনগন পায়। কেউ যাতে সরকারী সেবা থেকে বঞ্চিত না হয় সে লক্ষে কাজ করছেন এবং সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» বেগমগঞ্জে ঈদের রাতে আ,লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সহ আহত ৯ গ্রেফতার ৩

» নোয়াখালী সিভিল সার্জন অফিসের ফেসবুক আইডি হ্যাক

» চাটখিলে বাবার বাড়ী থেকে ১ সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

» করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির কয়েক ঘন্টা পরে মারা গেলেন বেগমগঞ্জের একজন

» স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘উইফরইউ পাঠশালা’র ১২০ শিক্ষার্থী পেল ঈদ উপহার ও নগদ অর্থ

» নোয়াখালীতে নুতন আক্রান্ত ৭৭, চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগ বাদে সব বন্ধ

» নোয়াখালীতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে সেনাবাহিনীর

» ৫ম ধাপে করোনা দুর্যোগে অসচ্ছল পরিবারের পাশে সোনাচাকা ইসলামী কালচারাল সেন্টার

» চাটখিলে ব্যারিস্টার মনির হোসেন কাজলের উদ্যোগে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

» সুবর্ণচর উপজেলা যুবদল ও ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ৩৫০ পরিবারকে ঈদ উপহার বিতরন

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

সোনাইমুড়ীতে ইউএনওর প্রচেষ্টায় পাল্টে গেছে উপজেলা পরিষদের দৃশ্যপট

 

মনিরুল ইসলাম ফয়সাল, সোনাইমুড়ী থেকেঃ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলা পরিষদের দৃশ্যপট ইউএনও টিনা পালের প্রচেষ্টায় পাল্টাতে শুরু করেছে। বেড়েছে জনসেবার মান, কমেছে দালাল দৌরাত্ম্য। প্রশাসনিক কাঠামো হয়েছে অত্যন্ত শক্তিশালী।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালে উপজেলা পরিষদ কার্যক্রম শুরু হলেও পরিবেশের দিক দিয়ে তেমন কোনো উন্নয়ন হয়নি। বর্তমান ইউএনও টিনা পালের আমলে উপজেলা প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু মৌরাল,জলাবদ্ধ স্থান মাটি দিয়ে বরাট করে খেলার মাঠ, ফুল, ফল আর ঔষধি গাছ লাগিয়ে সৃষ্টি করেছেন নজরকাঁড়া পরিবেশ।
এখানকার অফিসগুলো ছিলো দালালদের দখলে। অনিয়মের আখড়া উচ্ছেদ করে উপজেলা পরিষদকে সু-শৃঙ্খল পরিবেশে ঢেলে সাজান বর্তমান ইউএনও। তিনি যোগদানের পর উপজেলা পরিষদের দুর্বল প্রশাসনকে চাঙ্গা করে তোলেন যেখানে এসে মানুষ হয়রানির পরিবর্তে দ্রুত কাজ সমাধান করতে পারছেন। ইউএনওর কঠোর তৎপরতার মুখে অফিসগুলোতে বেড়েছে জনসেবার মান । উপজেলা পরিষদ এলাকায় আইন শৃঙ্খলার ঘটেছে ব্যাপক উন্নয়ন । উপজেলার বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নমূলক কাজে কোন ধরনের অনিয়ম দেখা দিলে বিল-প্রদান থেকে তিনি বিরত থাকেন। তার তৎপরতায় জনপ্রতিনিধিদের কাজে সৃষ্টি হয়েছে স্বচ্ছতা ও গতিশীলতা। নিয়মিত মাসিক মিটিংয়ে তিনি কর্মকর্তা কর্মচারী সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে সততা ও নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন এবং কারো কাজে গাফিলাতি ও অনিয়মের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানিয়ে দেন। এদিকে উপজেলা প্রকৌশলী, কৃষি, ত্রাণ, মৎস্য, পশু, শিক্ষা, সমবায়, সমাজসেবা, প্রকল্প বাস্তবায়ন, যুব উন্নয়নসহ বিভিন্ন অফিসে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মের গতিশীলতাও প্রশংসনীয়। উপজেলার বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতেও স্বচ্ছতা, শিক্ষারমান ও শিক্ষকদের কাজের গতিশীলতা বেড়েছে। স্কুল ফাঁকিবাজ, নকল আদানপ্রদানে সহায়তা করা শিক্ষকদের শাস্তি ও কঠোর হুশিঁয়ার আরোপ করেন। বাল্যবিবাহ বন্ধে নিয়েছে কঠোর ব্যবস্থা। স্থানীয় বাজার গুলোতে জিনিসপত্রের দাম স্থিতিশীল রাখতে চালাচ্ছে ঘনঘন অভিযান। সপ্তাহ একদিন গনশুনানি ছাড়াও প্রতিটি ইউনয়নে গিয়ে গরিব, অসহায়, বৃদ্ধা , প্রতিবন্ধী শিশুরা সঠিকভাবে সরকারি সুযোগসুবিধা পাচ্ছে কিনা সে ব্যাপারে রাখছেন খোঁজখবর।
নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক ইউএনও অফিসের
একজন কর্মচারী জানান, ইউএনও স্যার সরকারী আইনের বাইরে কোন কাজ করেন না।
তিনি যোগদানের পর থেকে মাদক নির্মূলের অঙ্গীকার নিয়ে অসংখ্য মাদক বিক্রেতাকে দিয়েছেন শাস্তি। সবার আগে দুর্ঘটার কবলে পড়া মানুষদের প্রাধান্য দিয়ে সরকারি ঘর নির্মান, গভীর রাতে বাড়ী বাড়ী গিয়ে শীতার্ত মানুষকে কম্বল বিতরণ করে নজির স্থাপন করেছেন। তার সততা এবং কঠোর পরিশ্রমে উপজেলায় ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে।
ইউএনও টিনা পাল জানান, বর্তমান সরকার উন্নয়নের মাধ্যমে দেশকে অনেক এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, সরকারী সকল সুযোগসুবিধা যাতে জনগন পায়। কেউ যাতে সরকারী সেবা থেকে বঞ্চিত না হয় সে লক্ষে কাজ করছেন এবং সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd