‘নোয়াখালী বিভাগ চাই’ নাটকের পরিচালকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্কঃ

‘নোয়াখালী বিভাগ চাই’ নামের একটি নাটকের পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ৯ ডিসেম্বর একটি বেসরকারি টেলিভিশনে স্ম্যাক আজাদের নির্মিত ‘নোয়াখালী বিভাগ চাই’ নামক নাটকটি প্রচারিত হয়।
এটি প্রযোজনা করে এন আর মিডিয়া। নাটকটি প্রচারের পর নির্মাতার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে এই মামলা দায়ের করা হয়।
সোমবার সকালে নোয়াখালীবাসীর পক্ষে বাদী হয়ে নোয়াখালীর ইতিহাস-ঐতিহ্য, ভাষা ও সংস্কৃতিকে বিকৃত করে সমগ্র নোয়াখালীবাসীকে চরমভাবে অপমানের অভিযোগ তুলে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেন ‘নিরাপদ নোয়াখালী চাই’ এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুর রহমান রাসেল।
বাদী পক্ষের মামলার আইনজীবী ছিলেন আশরাফুল ইসলাম মাসুদ। মামলায় বিজ্ঞ জেলা জজ তথ্য মন্ত্রণালয়কে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন। মামলা দায়ের শেষে অভিযুক্ত আসামীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে তৃণমূল নোয়াখালীবাসীর অংশগ্রহণে হাজারো মানুষের ঢল নামে শহরের টাউন হল মোড় সংলগ্ন প্রধান সড়কে। সেখানে মানববন্ধন, র্যালি এবং বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, স্ম্যাক আজাদ তার নির্মিত নাটকে আমাদের প্রাণের নোয়াখালীর ইতিহাস-ঐতিহ্য, ভাষা ও সংস্কৃতিকে অত্যন্ত বিকৃতভাবে উপস্থাপন করেছে সমগ্র বাঙালি জাতির সামনে। এটি সম্পূর্ণভাবে উদ্দেশ্য প্রণোদিত।
এই নাটকে প্রকৃতভাবে আমাদের নোয়াখালী কোনো দৃশ্যপট ফুটে ওঠেনি, দেখানো হয়নি নোয়াখালীর বীর সন্তানদেরকেও, ফুটিয়ে তোলা হয়নি নোয়াখালীর শত বছরের পুরনো ইতিহাস, ঐতিহ্য কিংবা সংস্কৃতিকে। শুধু তাই নয়, নাটকে রাজপথে নোয়াখালীর তরুণদের বিভাগ আন্দোলনকে শুধুই ফাতরামি বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এটি নোয়াখালীর তরুণ প্রজন্মসহ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের হৃদয়কে আহত করেছে।
বেগমগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুর রহমান রাসেলের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন প্রিন্সিপাল মোঃ সামছুদ্দিন, নোয়াখালী টিভির পরিচালক আবদুল হামিদ রনি, ‘নিরাপদ নোয়াখালী চাই’ এর সদর উপজেলা শাখার প্রধান সমন্বয়ক মিজানুর রহমান, সংগঠনের নোবিপ্রবি শাখার সভানেত্রী মাহমুদা আক্তার, সভানেত্রী আফসানা সোমা, সমন্বয়ক সুমি আক্তার, মিতু মাহী, নাইম রাসেল, ডা.শাহাদাৎ, মাসুদ প্রমুখ।
এছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালীর বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক অঙ্গনের নেতাকর্মীরা।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» সোনাইমুড়ীতে শিশু অপহরণ, ২ অপহরণকারী আটক

» মুক্তমতঃ প্রহসনের লকডাউন ও আমাদের ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট

» চাটখিলে সুবিধা বঞ্চিত শিশুরা পেলো ঈদ জামা

» মসজিদে ঢুকে নোবিপ্রবির সহকারী রেজিস্ট্রারকে ছুরিকাঘাত

» দক্ষিণ আফ্রিকায় জোহানসবার্গ সিটিতে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

» সোনাইমুড়ীর দেওটিতে বিএনপি নেতাদের উপহার প্রদান ও খালেদা জিয়ার জন্যে দোয়া

» সোনাইমুড়ীর আমিশাপাড়ায় মাদক ব্যাবসায়ীদের অভয়ারণ্য

» চাটখিলে যুবদলের কমিটি পূনঃ গঠনের দাবিতে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম

» বেগমগঞ্জে নববধূকে গলাটিপে হত্যা, স্বামী আটক

» একরাম চৌধুরী ৬ তারিখের মধ্যে আমাকে হত্যা করবে

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

‘নোয়াখালী বিভাগ চাই’ নাটকের পরিচালকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা

প্রিয় নোয়াখালী ডেস্কঃ

‘নোয়াখালী বিভাগ চাই’ নামের একটি নাটকের পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ৯ ডিসেম্বর একটি বেসরকারি টেলিভিশনে স্ম্যাক আজাদের নির্মিত ‘নোয়াখালী বিভাগ চাই’ নামক নাটকটি প্রচারিত হয়।
এটি প্রযোজনা করে এন আর মিডিয়া। নাটকটি প্রচারের পর নির্মাতার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে এই মামলা দায়ের করা হয়।
সোমবার সকালে নোয়াখালীবাসীর পক্ষে বাদী হয়ে নোয়াখালীর ইতিহাস-ঐতিহ্য, ভাষা ও সংস্কৃতিকে বিকৃত করে সমগ্র নোয়াখালীবাসীকে চরমভাবে অপমানের অভিযোগ তুলে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেন ‘নিরাপদ নোয়াখালী চাই’ এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুর রহমান রাসেল।
বাদী পক্ষের মামলার আইনজীবী ছিলেন আশরাফুল ইসলাম মাসুদ। মামলায় বিজ্ঞ জেলা জজ তথ্য মন্ত্রণালয়কে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন। মামলা দায়ের শেষে অভিযুক্ত আসামীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে তৃণমূল নোয়াখালীবাসীর অংশগ্রহণে হাজারো মানুষের ঢল নামে শহরের টাউন হল মোড় সংলগ্ন প্রধান সড়কে। সেখানে মানববন্ধন, র্যালি এবং বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, স্ম্যাক আজাদ তার নির্মিত নাটকে আমাদের প্রাণের নোয়াখালীর ইতিহাস-ঐতিহ্য, ভাষা ও সংস্কৃতিকে অত্যন্ত বিকৃতভাবে উপস্থাপন করেছে সমগ্র বাঙালি জাতির সামনে। এটি সম্পূর্ণভাবে উদ্দেশ্য প্রণোদিত।
এই নাটকে প্রকৃতভাবে আমাদের নোয়াখালী কোনো দৃশ্যপট ফুটে ওঠেনি, দেখানো হয়নি নোয়াখালীর বীর সন্তানদেরকেও, ফুটিয়ে তোলা হয়নি নোয়াখালীর শত বছরের পুরনো ইতিহাস, ঐতিহ্য কিংবা সংস্কৃতিকে। শুধু তাই নয়, নাটকে রাজপথে নোয়াখালীর তরুণদের বিভাগ আন্দোলনকে শুধুই ফাতরামি বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এটি নোয়াখালীর তরুণ প্রজন্মসহ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের হৃদয়কে আহত করেছে।
বেগমগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুর রহমান রাসেলের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন প্রিন্সিপাল মোঃ সামছুদ্দিন, নোয়াখালী টিভির পরিচালক আবদুল হামিদ রনি, ‘নিরাপদ নোয়াখালী চাই’ এর সদর উপজেলা শাখার প্রধান সমন্বয়ক মিজানুর রহমান, সংগঠনের নোবিপ্রবি শাখার সভানেত্রী মাহমুদা আক্তার, সভানেত্রী আফসানা সোমা, সমন্বয়ক সুমি আক্তার, মিতু মাহী, নাইম রাসেল, ডা.শাহাদাৎ, মাসুদ প্রমুখ।
এছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালীর বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক অঙ্গনের নেতাকর্মীরা।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd