বেগমগঞ্জে নববধূকে গলাটিপে হত্যা, স্বামী আটক

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নববধূকে গলাটিপে হত্যা করেছে স্বামী। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ফাতেমা আক্তার মুন্নি (১৯), নোয়াখালী পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের মধুসুদনপুর গ্রামের ফরিদ হাজী বাড়ির আহছান উল্যার মেয়ে।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) এ ঘটনায় নিহতের মা খায়েরুন নেছা বাদী অভিযুক্ত স্বামীকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে, গতকাল বুধবার (৫ মে) গভীর রাতের যে কোন এক সময়ে উপজেলার ৫নং ছয়ানী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর নয়নপুর গ্রামের ওদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত স্বামী মো.জিহাদ (২২), উপজেলার ৫নং ছয়ানী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর নয়নপুর গ্রামের ওদার বাড়ির মো.হারুনের ছেলে।

ভুক্তভোগী পরিবার ও মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, গত ৩ মাস ২৭ দিন আগে মুন্নি ও জিহাদ প্রেম করে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিবাহের পর  থেকে জিহাদ তাকে একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা কিনে দেওয়ার জন্য শ্বশুরের পরিবারের কাছে দাবি করে। তার স্ত্রীকে শ্বশুর বাড়ি থেকে টাকা এনে দেওয়ার জন্য শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করত। জিহাদের স্ত্রী তার মা-বাবা গরীব বলে তাদের পক্ষে অটোরিকশা কিনে দেওয়া সম্ভব নয় মর্মে স্বামীকে জানাইলে,সে স্ত্রীকে মারধর ও নির্যাতন করে। শ্বশুর-শাশুড়ি একাধিকবার মেয়ের স্বামীর বাড়িতে গেলে মেয়ের জামাই তাদের কাছেও অটোরিকশা কিনে দেওয়ার জন্য টাকা দাবি করে। শ্বশুর-শাশুড়ি অটোরিকশা কিনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সে ফের স্ত্রীর ওপর নির্যাতন করত। গতকাল বুধবার রাতে জিহাদ তার স্ত্রীকে অটোরিকশা  কিনে দেওয়ার জন্য টাকার এনে দেওয়ার কথা বললে এই নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। মুন্নি বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে পারবে না বললে গভীর রাতে বসত ঘরের রুমের খাটের ওপর তার স্বামী তাকে গলা টিপে হত্যা করে। নিহতের শাশুড়ি জোসনা বেগম সেহরী খেতে তাকে ডাকতে গেলে খাটের ওপর পুত্রবধূর মরদেহ দেখতে পায় এবং ভোররাতে মুন্নির মা-বাবাকে তার মৃত্যুর খবর দেয়। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে এবং ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্ত আসামিকে আটক করে। এক পর্যায়ে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সে স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করে স্বামী।

বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকাদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, আটককৃত আসামিকে শুক্রবার বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। নিহতের মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে সন্ধ্যায় পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রাত ৯টার দিকে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» সীমানা জড়িলতায় আইউব আলীকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে রামগতিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ

» সোনাইমুড়ীতে ভাইয়ের মৃত্যুতে হতাশাগ্রস্ত কলেজছাত্রী বোনের আত্মহত্যা

» কোপা সামছু অস্ত্রসহ গ্রেফতার

» বেগমগঞ্জে বাবু বাহিনীর ক্যাডার সজিব অস্ত্র-গুলিসহ আটক

» বাহরাইনে করোনায় সেনবাগের রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু

» নোয়াখালীতে ইয়াবা বিক্রির সময় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

» মনির বেগ বিআইইএ এর চাটখিল উপজেলা সভাপতি নির্বাচিত

» চাটখিলে ইউনিয়ন যুবলীগ সদস্য স্বপনকে বহিস্কার

» চাটখিলে আপন ভাই কোপালো দুই বোনকে

» সুবর্ণচরে জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী অনুষ্ঠান পুলিশের বাঁধায় পন্ডের অভিযোগ

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল kanon.p[email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

বেগমগঞ্জে নববধূকে গলাটিপে হত্যা, স্বামী আটক

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নববধূকে গলাটিপে হত্যা করেছে স্বামী। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ফাতেমা আক্তার মুন্নি (১৯), নোয়াখালী পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের মধুসুদনপুর গ্রামের ফরিদ হাজী বাড়ির আহছান উল্যার মেয়ে।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) এ ঘটনায় নিহতের মা খায়েরুন নেছা বাদী অভিযুক্ত স্বামীকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে, গতকাল বুধবার (৫ মে) গভীর রাতের যে কোন এক সময়ে উপজেলার ৫নং ছয়ানী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর নয়নপুর গ্রামের ওদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত স্বামী মো.জিহাদ (২২), উপজেলার ৫নং ছয়ানী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর নয়নপুর গ্রামের ওদার বাড়ির মো.হারুনের ছেলে।

ভুক্তভোগী পরিবার ও মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, গত ৩ মাস ২৭ দিন আগে মুন্নি ও জিহাদ প্রেম করে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিবাহের পর  থেকে জিহাদ তাকে একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা কিনে দেওয়ার জন্য শ্বশুরের পরিবারের কাছে দাবি করে। তার স্ত্রীকে শ্বশুর বাড়ি থেকে টাকা এনে দেওয়ার জন্য শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করত। জিহাদের স্ত্রী তার মা-বাবা গরীব বলে তাদের পক্ষে অটোরিকশা কিনে দেওয়া সম্ভব নয় মর্মে স্বামীকে জানাইলে,সে স্ত্রীকে মারধর ও নির্যাতন করে। শ্বশুর-শাশুড়ি একাধিকবার মেয়ের স্বামীর বাড়িতে গেলে মেয়ের জামাই তাদের কাছেও অটোরিকশা কিনে দেওয়ার জন্য টাকা দাবি করে। শ্বশুর-শাশুড়ি অটোরিকশা কিনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সে ফের স্ত্রীর ওপর নির্যাতন করত। গতকাল বুধবার রাতে জিহাদ তার স্ত্রীকে অটোরিকশা  কিনে দেওয়ার জন্য টাকার এনে দেওয়ার কথা বললে এই নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। মুন্নি বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে পারবে না বললে গভীর রাতে বসত ঘরের রুমের খাটের ওপর তার স্বামী তাকে গলা টিপে হত্যা করে। নিহতের শাশুড়ি জোসনা বেগম সেহরী খেতে তাকে ডাকতে গেলে খাটের ওপর পুত্রবধূর মরদেহ দেখতে পায় এবং ভোররাতে মুন্নির মা-বাবাকে তার মৃত্যুর খবর দেয়। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে এবং ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্ত আসামিকে আটক করে। এক পর্যায়ে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সে স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করে স্বামী।

বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকাদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, আটককৃত আসামিকে শুক্রবার বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। নিহতের মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে সন্ধ্যায় পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রাত ৯টার দিকে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd