রামগঞ্জে ইটভাটার চিমনি ধসে দুই ভাই নিহত \ আহত ১০


রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি ঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ৯নং ভোলাকোট ইউনিয়নের হেহলা গ্রামে মদিনা ইটভাটার উঁচু চিমনির সাইডওয়াল ধসে পড়ে দুই সহোদর ভাই নিহত হয়েছেন। এসময় অন্তত ৮ শ্রমিক আহত হন। রোববার (২৩ মে) বিকেল ৫টায় মদিনা ব্রিকসে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
এদিকে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময় ভাটার অন্য শ্রমিকরা বঁাধা দেয়। এসময় তঁারা বিক্ষোভ করে ভাটা মালিক আমির হোসেন ডিপজলের বিচার দাবি করেন। তবে ঘটনার পরপরই ডিপজল দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, এ্যাসিল্যান্ড মোঃ মাহবুবর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। নিহতরা হলেন বেলাল হোসেন (৩২) ও তঁার ভাই ফারুক হোসেন (১৬)। তঁারা জেলার কমলনগর উপজেলার বাসিন্দা।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘটনার সময় ইটভাটার উঁচু চিমনির দেয়াল ধসে পড়ে। এসময় কর্মরত বেলাল ও ফারুকসহ ১০ জন শ্রমিক ধসে পড়া দেয়ালের নিচে চাপা পড়েন। এতে বেলাল ও ফারুক ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহযোগীতায় আহত শ্রমিক মোঃ রায়হান, জাবেদ হোসেন,মোঃ ফিরোজ, কামরুল হোসেন,সহেল হোসেন,আনোয়ার আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। ঘটনাস্থল থেকে মরদেহগুলো আনার সময় শ্রমিকরা ভাটা মালিকের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে শ্রমিকরা বিক্ষোভ বন্ধ করে। দুর্ঘটনার পরপরই ভাটা মালিক পালিয়ে গেছে।
অন্যদিকে এ ইটভাটায় ২ বছর আগে একইভাবে চুলার দেয়াল ধসে পড়ে ৫ জন আহত হয়। ভোলাকোট ইউনিয়নেই ১১ টি ইটভাটা রয়েছে। এর অধিকাংশই সঠিক কাগজপত্র নেই। অবৈধভাবে এসব ইটভাটা গড়ে উঠা এবং বন্ধ না করায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে দায়ী করেছেন স্থানীয়রা।
রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক ও ইউএনওসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাটি অবগত রয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ করা হয়নি। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তে ও লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» সীমানা জড়িলতায় আইউব আলীকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে রামগতিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ

» সোনাইমুড়ীতে ভাইয়ের মৃত্যুতে হতাশাগ্রস্ত কলেজছাত্রী বোনের আত্মহত্যা

» কোপা সামছু অস্ত্রসহ গ্রেফতার

» বেগমগঞ্জে বাবু বাহিনীর ক্যাডার সজিব অস্ত্র-গুলিসহ আটক

» বাহরাইনে করোনায় সেনবাগের রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু

» নোয়াখালীতে ইয়াবা বিক্রির সময় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

» মনির বেগ বিআইইএ এর চাটখিল উপজেলা সভাপতি নির্বাচিত

» চাটখিলে ইউনিয়ন যুবলীগ সদস্য স্বপনকে বহিস্কার

» চাটখিলে আপন ভাই কোপালো দুই বোনকে

» সুবর্ণচরে জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী অনুষ্ঠান পুলিশের বাঁধায় পন্ডের অভিযোগ

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

রামগঞ্জে ইটভাটার চিমনি ধসে দুই ভাই নিহত \ আহত ১০


রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি ঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ৯নং ভোলাকোট ইউনিয়নের হেহলা গ্রামে মদিনা ইটভাটার উঁচু চিমনির সাইডওয়াল ধসে পড়ে দুই সহোদর ভাই নিহত হয়েছেন। এসময় অন্তত ৮ শ্রমিক আহত হন। রোববার (২৩ মে) বিকেল ৫টায় মদিনা ব্রিকসে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
এদিকে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময় ভাটার অন্য শ্রমিকরা বঁাধা দেয়। এসময় তঁারা বিক্ষোভ করে ভাটা মালিক আমির হোসেন ডিপজলের বিচার দাবি করেন। তবে ঘটনার পরপরই ডিপজল দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, এ্যাসিল্যান্ড মোঃ মাহবুবর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। নিহতরা হলেন বেলাল হোসেন (৩২) ও তঁার ভাই ফারুক হোসেন (১৬)। তঁারা জেলার কমলনগর উপজেলার বাসিন্দা।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘটনার সময় ইটভাটার উঁচু চিমনির দেয়াল ধসে পড়ে। এসময় কর্মরত বেলাল ও ফারুকসহ ১০ জন শ্রমিক ধসে পড়া দেয়ালের নিচে চাপা পড়েন। এতে বেলাল ও ফারুক ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহযোগীতায় আহত শ্রমিক মোঃ রায়হান, জাবেদ হোসেন,মোঃ ফিরোজ, কামরুল হোসেন,সহেল হোসেন,আনোয়ার আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। ঘটনাস্থল থেকে মরদেহগুলো আনার সময় শ্রমিকরা ভাটা মালিকের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে শ্রমিকরা বিক্ষোভ বন্ধ করে। দুর্ঘটনার পরপরই ভাটা মালিক পালিয়ে গেছে।
অন্যদিকে এ ইটভাটায় ২ বছর আগে একইভাবে চুলার দেয়াল ধসে পড়ে ৫ জন আহত হয়। ভোলাকোট ইউনিয়নেই ১১ টি ইটভাটা রয়েছে। এর অধিকাংশই সঠিক কাগজপত্র নেই। অবৈধভাবে এসব ইটভাটা গড়ে উঠা এবং বন্ধ না করায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে দায়ী করেছেন স্থানীয়রা।
রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক ও ইউএনওসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাটি অবগত রয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ করা হয়নি। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তে ও লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল [email protected]

Developed BY Trustsoftbd