সুবর্ণচরে ওসির ফোন ক্লোন করে চেয়ারম্যানের ৪ লাখ টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র


নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালীর চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হকের সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে এক ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে ৪লাখ টাকা।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী উপজেলার ৪নং চরওয়াপদা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.মনির আহমেদ (৬৪) চরজব্বর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এবং আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো.মনির আহমেদের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে দুটি নাম্বার থেকে কল আসে। এ সময় কল দাতা নিজকে অফিসার ইনচার্জ চরজব্বর থানা বলে পরিচয় দিয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদেরকে ম্যানেজ করার উদ্দেশ্যে তার নিকট টাকা চায়। এরপর তিনি সাথে থাকা আরেক ব্যক্তিকে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নোয়াখালী পরিচয় দিয়ে বলে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের পরামর্শমত অন্যান্য অফিসারদেরকে ম্যানেজ করার জন্য চার লক্ষ টাকা পাঠানোর জন্য বলেন। ওসি পরিচয় দানকারী ব্যক্তি কর্তৃক প্রদত্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের ব্যক্তিগত ৮টি বিকাশ নম্বরে মনির চেয়ারম্যান পঞ্চাশ হাজার টাকা করে চার লক্ষ টাকা প্রেরণ করে। টাকা পাঠানের পরে ওসি পরিচয় দান কারি প্রতারক ব্যক্তি রাত ৯টার দিকে চেয়ারম্যানকে থানায় এসে পরবর্তী কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে বলেন। রাত ৯টার দিকে চেয়ারম্যান থানায় এসে প্রকৃত ওসির সাথে কথা বলে প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পারেন।

চর জব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হক এ সব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, আজ দিনের বিভিন্ন সময় আমার ব্যবহৃত সরকারি মোবাইল নম্বরটি (০১৩২০১১১১৬৩) ক্লোন করে একাধিক ব্যক্তিকে বিভিন্ন ভাবে প্রতারিত করার খবর ভুক্তভোগী কয়েকজন সরাসরি থানায় এসে জানান। তিনি আরো জানান, এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। তিনি সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান করেন।

Share Button

সর্বশেষ আপডেট



» সোনাইমুড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের ৪জনের মৃত্যু

» ঢাকাস্থ নোয়াখালী জার্নালিস্ট ফোরাম’র নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটি

» হাতিয়ার ভাসানচর থেকে পালাতে গিয়ে আটক ১৮ রোহিঙ্গা

» বেগমগন্জে ১০ টাকার জন্য রিকশা চালককে কুপিয়ে হত্যা

» লক্ষ্মীপুরে ডেঙ্গু জ্বরে যুবক সাইফুলের মৃত্যু

» নোয়াখালী সদরে মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণে গোলাগুলি,গুলিবিদ্ধ-১

» দক্ষিণ আফ্রিকায় ফেনীর যুবককের মৃত্যু

» চাটখিলে রামনারায়নপুর স্কুলের শিক্ষকের স্মরনে সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

» বন্ধুর সাথে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, গ্রেফতার-১

» সন্তানসহ রামগতিতে নিখোঁজ সেই নারী চট্টগ্রামের বান্ধবীর বাসা থেকে উদ্ধার

ফেইসবুকে প্রিয় নোয়াখালী

সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল kanon.press@gmail.com
Desing & Developed BY Trust soft bd
,

সুবর্ণচরে ওসির ফোন ক্লোন করে চেয়ারম্যানের ৪ লাখ টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র


নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালীর চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হকের সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে এক ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে ৪লাখ টাকা।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী উপজেলার ৪নং চরওয়াপদা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.মনির আহমেদ (৬৪) চরজব্বর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এবং আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো.মনির আহমেদের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে দুটি নাম্বার থেকে কল আসে। এ সময় কল দাতা নিজকে অফিসার ইনচার্জ চরজব্বর থানা বলে পরিচয় দিয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদেরকে ম্যানেজ করার উদ্দেশ্যে তার নিকট টাকা চায়। এরপর তিনি সাথে থাকা আরেক ব্যক্তিকে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নোয়াখালী পরিচয় দিয়ে বলে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের পরামর্শমত অন্যান্য অফিসারদেরকে ম্যানেজ করার জন্য চার লক্ষ টাকা পাঠানোর জন্য বলেন। ওসি পরিচয় দানকারী ব্যক্তি কর্তৃক প্রদত্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের ব্যক্তিগত ৮টি বিকাশ নম্বরে মনির চেয়ারম্যান পঞ্চাশ হাজার টাকা করে চার লক্ষ টাকা প্রেরণ করে। টাকা পাঠানের পরে ওসি পরিচয় দান কারি প্রতারক ব্যক্তি রাত ৯টার দিকে চেয়ারম্যানকে থানায় এসে পরবর্তী কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে বলেন। রাত ৯টার দিকে চেয়ারম্যান থানায় এসে প্রকৃত ওসির সাথে কথা বলে প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পারেন।

চর জব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হক এ সব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, আজ দিনের বিভিন্ন সময় আমার ব্যবহৃত সরকারি মোবাইল নম্বরটি (০১৩২০১১১১৬৩) ক্লোন করে একাধিক ব্যক্তিকে বিভিন্ন ভাবে প্রতারিত করার খবর ভুক্তভোগী কয়েকজন সরাসরি থানায় এসে জানান। তিনি আরো জানান, এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। তিনি সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান করেন।

Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



web-ad

সর্বশেষ আপডেট





সম্পাদক ও প্রকাশক:: কামরুল ইসলাম কানন।
যোগাযোগ:: ০১৭১২৯৮৩৭৫১।
ইমেইল kanon.press@gmail.com

Developed BY Trustsoftbd