Dhaka ০২:২০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৯ জুন ২০২৪

কবিরহাটের সেই যুবকের লাশ মিললো পুকুরে

  • আপডেট: ০১:৪২:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ জুন ২০২২
  • 264

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ
নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় নিখোঁজের ১২ঘন্টা পর এক যুবকের মরদেহ পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত মো.শাহীনুর রহমান সোহেল (৪২) উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের মেস্ত্রী বাড়ির মৃত মোখলেছুর রহমানের ছেলে।

শুক্রবার (৩ জুন) সকাল ৬টার দিকে উপজেলার উপজেলার ৭নং বাটইয়া ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের মেস্ত্রী বাড়ির পুকুর থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কবিরহাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন বলেন,গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সোহেলকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর বাড়ির লোকজন শুক্রবার সকালে ফজরের নামাজ পড়তে উঠলে পুকুরে সোহেলের মরদেহ ভাসতে দেখে উদ্ধার। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।

এসআই আরো জানান, নিহতের স্বজনেরা জানায় সোহেল আগে থেকেই মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সন্ধ্যায় মুখ-হাত ধুতে গিয়ে মৃগী রোগে আক্রান্ত হয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে মারা গেছে। পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় বেলা ১১টার দিকে জানাজা শেষে পরিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

চাটখিলে  ছাত্রলীগ নেতার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৩শ নেতাকর্মীদের ঈদ উপহার

কবিরহাটের সেই যুবকের লাশ মিললো পুকুরে

আপডেট: ০১:৪২:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ জুন ২০২২

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ
নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় নিখোঁজের ১২ঘন্টা পর এক যুবকের মরদেহ পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত মো.শাহীনুর রহমান সোহেল (৪২) উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের মেস্ত্রী বাড়ির মৃত মোখলেছুর রহমানের ছেলে।

শুক্রবার (৩ জুন) সকাল ৬টার দিকে উপজেলার উপজেলার ৭নং বাটইয়া ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের মেস্ত্রী বাড়ির পুকুর থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কবিরহাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন বলেন,গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সোহেলকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর বাড়ির লোকজন শুক্রবার সকালে ফজরের নামাজ পড়তে উঠলে পুকুরে সোহেলের মরদেহ ভাসতে দেখে উদ্ধার। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।

এসআই আরো জানান, নিহতের স্বজনেরা জানায় সোহেল আগে থেকেই মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সন্ধ্যায় মুখ-হাত ধুতে গিয়ে মৃগী রোগে আক্রান্ত হয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে মারা গেছে। পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় বেলা ১১টার দিকে জানাজা শেষে পরিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়।