Dhaka ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৯ জুন ২০২৪

চাটখিলে ঘরে ঢুকে বিএনপি নেতাকে হত্যা।প্রত্যক্ষদর্শী কে পিটিয়ে আহত

  • আপডেট: ০৩:৪৪:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০২২
  • 1

 

চাটখিল প্রতিনিধি ঃ
নোয়াখালীর চাটখিলে খিলপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী সোহেল চৌধুরীকে তার নিজ ঘরে ঢুকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।আর এই ঘটনায় সময় তার সাথে থাকা তার চাচাতো ভাই ইব্রাহিম খলিল কে বেদম মারধর করে আহত করে।
নিহত সোহেল চৌধুরী উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব দেলিয়াই গ্রামের শরিফ উল্লার ছেলে।
তাদের স্বজনরা জানান, সোহেল চৌধুরী দলীয় কার্যক্রমের পর গতরাতে বাড়িতে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত আনুমানিক ২টা / ৩ টার দিকে বেশ কিছু সন্ত্রাসী জোরপূর্বক তাদের ঘরে ঢুকে সোহেল চৌধুরীকে পিটিয়ে এবং গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে।
এই সময় তার সাথে থাকা একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী ইব্রাহিম খলিল তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে তাকেও সন্ত্রাসীরা বেদম মারধর করে গুরুতর আহত করে। মুমূর্ষ অবস্থায় ইব্রাহিম খলিলকে স্বজনরা উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্র নিয়ে যায়।

এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন সাবেক স্থানীয় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন। তিনি বলেন সোহেল চৌধুরী তাদের দলের নিবেদিত প্রান ছিলেন। তিনি এই খুনের জন্য জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সরকারদলীয় সন্ত্রাসী মাসুদুর রহমান শিপন বাহিনীকে দায়ী করেন এবং ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদেরকে গ্রেফতারের দাবি জানান

এ ব্যাপারে চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন জানান, রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং সোহেল চৌধুরীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

চাটখিলে  ছাত্রলীগ নেতার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৩শ নেতাকর্মীদের ঈদ উপহার

চাটখিলে ঘরে ঢুকে বিএনপি নেতাকে হত্যা।প্রত্যক্ষদর্শী কে পিটিয়ে আহত

আপডেট: ০৩:৪৪:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০২২

 

চাটখিল প্রতিনিধি ঃ
নোয়াখালীর চাটখিলে খিলপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী সোহেল চৌধুরীকে তার নিজ ঘরে ঢুকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।আর এই ঘটনায় সময় তার সাথে থাকা তার চাচাতো ভাই ইব্রাহিম খলিল কে বেদম মারধর করে আহত করে।
নিহত সোহেল চৌধুরী উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব দেলিয়াই গ্রামের শরিফ উল্লার ছেলে।
তাদের স্বজনরা জানান, সোহেল চৌধুরী দলীয় কার্যক্রমের পর গতরাতে বাড়িতে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত আনুমানিক ২টা / ৩ টার দিকে বেশ কিছু সন্ত্রাসী জোরপূর্বক তাদের ঘরে ঢুকে সোহেল চৌধুরীকে পিটিয়ে এবং গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে।
এই সময় তার সাথে থাকা একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী ইব্রাহিম খলিল তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে তাকেও সন্ত্রাসীরা বেদম মারধর করে গুরুতর আহত করে। মুমূর্ষ অবস্থায় ইব্রাহিম খলিলকে স্বজনরা উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্র নিয়ে যায়।

এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন সাবেক স্থানীয় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন। তিনি বলেন সোহেল চৌধুরী তাদের দলের নিবেদিত প্রান ছিলেন। তিনি এই খুনের জন্য জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সরকারদলীয় সন্ত্রাসী মাসুদুর রহমান শিপন বাহিনীকে দায়ী করেন এবং ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদেরকে গ্রেফতারের দাবি জানান

এ ব্যাপারে চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন জানান, রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং সোহেল চৌধুরীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে।